এদেশের সংখ্যাগরিষ্ঠ গণজনতার পরম আকাংখা হচ্ছে ইসলামী শাসন : চরমোনাই পীর

ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম | ডেস্ক রিপোর্ট


ফাইল ছবি

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর আমীর মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করীম (চরমোনাই পীর ) বলেছেন, এদেশের সংখ্যাগরিষ্ঠ গণজনতার পরম আকাংখা হচ্ছে ইসলামী শাসন। ইসলাম ধর্ম আমাদের স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্বের গ্যারান্টি। ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ তাগুতের সংশ্রব ত্যাগ করে এদেশে ইসলামী শাসনের সোনালী অধ্যায় সৃষ্টি করতে আপোসহীনভাবে কাজ চালিয়ে যাচ্ছে।

আজ বিকেলে বরিশালের চরমোনাই মাদরাসায় বিভিন্ন শ্রেণি ও পেশার মানুষের সাথে মতবিনিময়কালে একথা বলেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন চরমোনাই ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মুফতি এছহাক মুহা. আবুল খায়ের, চরমোনাই মাদরাসার প্রধান মুফতি মাওলানা আবদুল মান্নান, মাওলানা মনিরুজ্জামানসহ মাদরাসা ছাত্র শিক্ষক।

চরমোনাই পীর বলেন,  বিরানব্বই ভাগ মুসলমান অধু্যুষিত বাংলাদেশে ইসলামী অনুশাসন না থাকায় সমাজে মাদক সন্ত্রাস, খুন, নারী নির্যাতনের মাত্রা ছাড়িয়ে যাচ্ছে। এখন নূনের চেয়ে খুন সস্তা। পর্দা মুসলমানদের ভুষণ। পর্দার বিধান তুলে দেয়ার পর থেকে আমাদের দেশে নারী নির্যাতন, ইভটিজিং, পরকিয়া, খুন, হত্যা, মাত্রা ছাড়িয়ে যাচ্ছে। সুখের সংসার ভেঙ্গে তছনছ হয়ে যাচ্ছে। দেশে সন্ত্রাস, দুর্নীতি, মাদক ভয়াবহ রূপ নিয়েছে। মাদক এখন এত সহজলভ্য হয়েছে যে, হাতাবাড়ালেই মাদক মিলে। সমাজে মাদক সন্ত্রাস অপরাধ প্রবণতা বেড়েই চলেছে। মাদকের কারণে শান্তিপূর্ণ একটি পরিবার অশান্তির আগুনে দগ্ধ হচ্ছে। মাদকমুক্ত সমাজ গঠনে সকলকে সোচ্চার হতে হবে। তিনি বলেন, সর্বত্র নৈতিক অবক্ষয় এবং ভারতীয় অশ্লীল ছবি ও অপসংস্কৃরি কারণে যুব সমাজ ধ্বংসপ্রায়। তিনি বলেন, এমতাবস্থায় ইসলামই দেশ ও জাতির আশা-আকাঙ্খার একমাত্র ভরসাস্থল। তিনি দেশের সকলস্তরের মানুষকে ইসলামী হুকুমত প্রতিষ্ঠার আন্দোলনে শরীক হওয়ার আহ্বান জানান।