নোয়াখালীতে মা হয়েছেন এক পাগলি , বাবা হয়নি কেউ

ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম | আরিফ সবুজ (নোয়াখালী প্রতিনিধি)


ঘটনাটি নোয়াখালীর হাতিয়া উপজেলার ১নং হরনি ইউনিয়নের। নাম তার খালেদা। বয়স আনুমানিক ২২ কি ২৩ বলে ধারনা করছেন স্থানীয়রা। মেয়েটি তার কোন পরিচয় দিতে না পারলেও শুধু এটাই বলছে, আমি বেগম খালেদা।

তিনমাস আগে একদিন হাতিয়ার হরনি ইউনিয়নের টাংকি রাস্তার মাথায় চলাফেরা করতে লাগলে নজরে আসে স্থানীয় কাশেম মিকারের। সে একাধিক কন্যা সন্তানের বাবা। কোন ছেলে নেই। সে খালেদাকে নিয়ে তার বাড়ি গেলে তার স্ত্রীসহ সে একটি পুত্র সন্তানের আশায় খালেদাকে বাড়িতে আশ্রয় দেয়। দীর্ঘ তিনমাস তাকে দেখাশোনা ও যাবতীয় বিষয়ের দায়িত্ব নেন।

অবশেষে আজ সন্ধ্যায় খালেদার প্রসবজনিত ব্যাথা শুরু হলে কাশেম মিকার স্থানীয় দ্বীপ উন্নয়ন সংস্থার পল্লী চিকিৎসককে সাথে নিয়ে গেলে তাকে কিছু ওষুধপাতি দিয়ে যাওয়ার পরই আসে আনন্দের সংবাদ। খালেদা মা হয়েছে। সকালে বিনোদন পেলেও খুশি নেই কাশেম মেকার। কারণ খালেদা কন্যা সন্তান জন্ম দিয়েছে। এবং সিদ্ধান্ত নেন, খালেদাকে আর রাখবেন না। তিনি বাবা হতে অস্বীকার করেন। অবশেষে, এলাকাবাসীর অনুরোধক্রমে তাকে আপাতত সন্তানসহ আশ্রয় দিয়েছেন কাশেম মিকার।

এ ব্যাপারে এলাকায় চাাাঞ্চল্য সৃৃষ্টি হলেও বিচ্ছিন্ন এলাকা হওয়ায় হাতিয়া উপজেলার সাস্থ কমপক্ষে বা হাতিয়ার প্রশাসন এ ব্যাপারে কোন মন্তব্য করেনি।