কাশ্মিরি শিশুকে গণধর্ষণ ও হত্যার ঘটনা ভয়াবহ: সুবিচারের দাবি জাতিসঙ্ঘ মহাসচিবের

ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম | ডেস্ক রিপোর্ট 


জাতিসংঘ মহাসচিব অ্যান্তোনিও গুতেরেস

কাশ্মিরের ৮ বছরের এক শিশুকে গণধর্ষণ ও হত্যার ঘটনাকে ‘ভয়াবহ’ বলে অভিহিত করেছেন জাতিসঙ্ঘের মহাসচিব আন্তেনিও গুতেরেস। তিনি ওই জঘন্য অপরাধে জড়িত অভিযুক্তদের আইনের আওতায় আনা হবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন।

গতকাল (শুক্রবার) জাতিসঙ্ঘের মহাসচিবের মুখপাত্র স্টিফেন দুজারিক বলেন, আমরা শিশুর সঙ্গে ধর্ষণের জঘন্য অপরাধের কথা গণমাধ্যমে দেখেছি। আমাদের আশা, কর্তৃপক্ষ অপরাধীদের আইনের আওতায় আনবেন যাতে ওই শিশুকে ধর্ষণ ও হত্যায় তাদের সাজা দেয়া যায়।

জম্মু-কাশ্মিরের কঠুয়ায় গত ১০ জানুয়ারি আসিফা নামে এক মুসলিম শিশুকে তার বাড়ির কাছ থেকে অপহরণ করা হয়। প্রায় এক সপ্তাহ পরে এক জঙ্গল থেকে তার ক্ষতবিক্ষত লাশ উদ্ধার হয়। তদন্ত রিপোর্টে প্রকাশ, তাকে একটি মন্দিরে সাতদিন ধরে আটকে রেখে গণধর্ষণ ও নির্মমভাবে হত্যা করা হয়েছে। প্রায় তিন মাস পরে ওই ঘটনা প্রকাশ্যে এসেছে।

গোটা দেশজুড়ে ওই ইস্যুতে তীব্র আলোড়ন সৃষ্টি হয়েছে। বিরোধীদের তীব্র সমালোচনা ও কটাক্ষের মুখে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি গতকাল (শুক্রবার) বলেন, ‘আমাদের দেশের নারী, কন্যাদের উপর অত্যাচারে গোটা দেশবাসী লজ্জিত। আমি আপনাদের আশ্বস্ত করছি কেউ রেহাই পাবে না। সকলের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি হবে।’

দেশের প্রধান বিরোধী দলের সভাপতি রাহুল গান্ধী অবশ্য কটাক্ষ করে বলেছেন, ‘প্রিয় প্রধানমন্ত্রী, নীরবতা ভাঙার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ। আপনি বলেছেন, আমাদের মেয়েরা সুবিচার পাবে। কিন্তু দেশ জানতে চায়, কবে?’

প্রসঙ্গত হিন্দু সংহতি নামে একটি সংগঠনের আড়ালে কাশ্মিরে বিজেপির একাংশ ওই শিশুকন্যার হত্যাকারীদের পক্ষে মিছিল ও অভিযুক্তদের গ্রেপ্তারের বিরোধিতা করেছে। তাদের ওই দাবিকে সমর্থন করেছেন জম্মু-কাশ্মির সরকারের দু’জন বিজেপি মন্ত্রীও। এরফলে রাজ্যে পিডিপি-বিজেপি জোট সরকারের ভবিষ্যৎ কার্যত খাদের কিনারায় এসে দাঁড়িয়েছে। পুলিশের বিশেষ তদন্ত দলের হাতে মূল অভিযুক্তরা এরইমধ্যে গ্রেফতার হয়েছে।

রাজ্যে উদ্ভূত পরিস্থিতি সামাল দেয়া না গেলে যে কোনো মুহূর্তেই জোট সরকারের পতন হতে পারে। পরিস্থিতি অনুকূলে না থাকায় অবশেষে গতকাল রাতে জম্মু-কাশ্মিরে জোট সরকারের শরিক বিজেপি নেতা ও মন্ত্রী চৌধুরী লাল সিংহ এবং চন্দ্র প্রকাশ গঙ্গা দলীয় সভাপতির কাছে ইস্তফা তুলে দিয়েছেন। অভিযুক্তদের আড়াল করতে, তাদের সমর্থনে গত মার্চে মিছিল করেন দুই মন্ত্রী চন্দ্রপ্রকাশ গঙ্গা ও চৌধুরী লাল সিংহ।

আজ (শনিবার) দলীয় বৈঠকে তাদের ব্যাপারে চূড়ান্ত সিদ্ধন্ত নেয়া হবে। এদিকে, আজই পিডিপি দলের নেতা ও বিধায়কদের নিয়ে বৈঠকে বসছেন মুখ্যমন্ত্রী মেহেবুবা মুফতি। রাজ্যের চলমান পরিস্থিতি ও বিজেপি’র সঙ্গে তাদের সম্পর্ক পর্যালোচনা করা হবে বলে বিশ্লেষকরা মনে করছেন।


উৎস, পার্সটুডে