মেখল মাদরাসার হেদায়া জামাতের বিদায়ী অনুষ্ঠান সম্পন্ন

ইনসাফ টোয়ান্টিফর ডটকম | জুনাইদ আহমদ


মুফতী আজম ফয়জুল্লাহ রহ.এর স্মৃতিধন্য ঐতিহ্যবাহী আল জামিয়াতুল ইসলাম হামীউস সুন্নাহ মেখল মাদরাসার জামাতে হেদায়ার ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের ছাত্রদের বিদায়ী অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়েছে৷

আজ (১৬ এপ্রিল)সোমবার বেলা ১১টা থেকে শুরু হওয়া এ বিদায়ী অনুষ্ঠান শেষ হয় বিকেল পাঁচটায়৷ বিদায়ী ছাত্রদের উদ্যেশ্যে নসিহত পেশ করেন মাদরাসার উস্তাদবৃন্দ৷

জামিয়ার মহাপরিচালক আল্লামা নোমান ফয়জী বিদায়ী ছাত্রদের উদ্যেশ্যে বলেন, পাঠদান ছাড়া জ্ঞানার্জন মুল্যহীন। আজকের শিক্ষার্থী যদি আগামীদিনে শিক্ষক হয়ে উঠতে না পারে তবে বোঝা যায় তার জ্ঞানার্জন পরিপূর্ণ হয়নি ৷

তিনি আরো বলেন, একজন প্রকৃত শিক্ষার্থীকে আগামীর তরুণদের শিক্ষাদান করতেই হবে, হোক তা স্বল্প সময়ের জন্য।

নোমান ফয়জী বলেন, মেখল মাদরাসা ইখলাসের ভিত্তিতে স্থাপিত হয়েছে। এ প্রতিষ্ঠানে যারা ইখলাসের সহিত পড়ালেখা করবে তারাই সফল ছাত্র। ইখলাসের প্রভাব কখনও নষ্ট হয় না। ভালো খারাপের সমীকরণের মাঝে অটল হয়ে দাঁড়িয়ে থাকে ইখলাস। তাই তোমরা ইখলাসের সহিত পাঠ গ্রহণ করবে এবং পাঠদান করবে৷

জামিয়ার অন্যান্য উস্তাদবৃন্দের মধ্যে নসীহত পেশ করেন মুফতী মুহাম্মাদ আলী কাসেমী,মাওলানা ফুরকান ফয়জী, মাওলানা নাসির উদ্দীন, মাওলানা ইসমাইল খান ফয়জী,মুফতী মুজিবুর রহমান, মাওলানা মাহমুদ হাসান ফয়জী, মাওলানা মুস্তাকীম বিল্লাহ প্রমূখ।

বিদায়ী ছাত্রদের পক্ষ থেকে উস্তাদবৃন্দকে সম্মানমূলক ক্রেষ্ট প্রদান করা হয়। এ বৎসরের হেদায়া সমাপণী ছাত্রদের ব্যাবস্থাপনায় আয়োজিত বিদায়ী অনুষ্ঠানে আখেরী মোনাজাত করেন মহাপরিচালক আল্লামা নোমান ফয়জী৷ মোনাজাতে কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন জামিয়ার বিদায়ী ছাত্ররা৷পুরো মজলিস ভারী হয়ে উঠে আমীন আমীন আর বুকভাসা কান্নার ধ্বনীতে৷

অনুষ্ঠান শেষে প্রত্যেক বিদায়ী ছাত্রের হাতে তুলে দেয়া হয় এ বৎসরের স্বরণিকা ‘আল ফয়েজ’।