নীলফামারীতে পুত্রকে হত্যার চেষ্টায় সৎবাবা আটক

ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম | নিজস্ব প্রতিনিধি


নীলফামারীর সৈয়দপুরে মঙ্গলবার সকালে ইনজেকশনের সিরিঞ্জ দিয়ে শিশুপুত্রের শরীরে বিষ ঢুকিয়ে হত্যার চেষ্টা করায় সৎবাবা লিটনকে আটক করেছে থানা পুলিশ।

জানা যায়, উপজেলার বাঙ্গালীপুর ইউনিয়নের ডাঙ্গাপাড়া গ্রামের এক সন্তানের জননী দুলালীর সাথে দুই মাস আগে বিয়ে হয় দিনাজপুরের পাবর্তীপুর উপজেলার বেলাইচন্ডি সর্দারপাড়া গ্রামের লিটনের সাথে। আরাফাত নামে তাদের ২ বছর বয়সের একটি সন্তান রয়েছে। দুলালী ইপিজেডে একটি কোম্পানিতে কাজ করে। লিটন পেশায় রাজমিস্ত্রী। ঘটনার দিন সকাল ৬টায় দুলালী ইপিজেডে কাজে চলে যায়। সকাল ৭টায় সৎবাবা লিটন শিশু পুত্র আরাফাতকে বাসার পেছনে পুকুর পাড়ে নিয়ে গিয়ে তার শরীরে ইনজেকশনের সিরিঞ্জের সাহায্যে বিষ ঢুকিয়ে দেয়।

এসময় শিশুটির কান্না শুনে তার নানী আশেদা ছুটে এসে দ্রুত সৈয়দপুর ১০০ শয্যা হাসপাতালে ভর্তি করে। অবস্থার অবনতি ঘটলে রংপুরপুর মেডিকেলে ভর্তি করানো হয়। সেখানে আশংকাজনক অবস্থায় রয়েছে শিশু আরাফাত।

মঙ্গলবার বিকেলে এলাকাবাসী সৎবাবা লিটন আহমেদকে (২৩) আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে।

এ বিষয়ে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার অশোক কুমার পাল জানান, সৎবাবা লিটন বিষ প্রয়োগের কথা স্বীকার করেছে। বাড়ির পাশে পুকুর পাড়ে সে ওই ঘটনাটি ঘটায়। এ ব্যাপারে মামলার প্রস্তুতি চলছে।