ষাঁড়ের লড়াই নিয়ে বাজির অভিযোগ, ৮ জুয়াড়ি আটক | insaf24.com

ষাঁড়ের লড়াই নিয়ে বাজির অভিযোগ, ৮ জুয়াড়ি আটক

ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম |  ডেস্ক রিপোর্ট


নেত্রকোনার আটপাড়া উপজেলার খিলা উচ্চবিদ্যালয় মাঠে ষাঁড়ের লড়াই নিয়ে বাজি ধরার অভিযোগে আটজন জুয়াড়িকে আটক করা হয়েছে। এ সময় দুটি ষাঁড় আটক করা হয়। আজ শনিবার ভোরে জেলা গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশ তাঁদের আটক করে।

আটক ব্যক্তিরা হলেন আটপাড়ার কাচুটিয়া গ্রামের বাসিন্দা টিটু মিয়া (৩৮), মো. আবদুল কায়েস (২৬), রায়নগর গ্রামের আলমুন মিয়া (৩২), খিলা গ্রামের আমিরুল ইসলাম (২২), চন্দন সরকার (৩০), মো. আবদুল ওয়াহাব মিয়া (৪৭), দৌলতপুর গ্রামের মো. রিয়াদ মিয়া (২২) ও মো. আমিরুল ইসলাম ভূঁইয়া (৩০)।

সূত্রমতে, এলাকায় ষাঁড়ের লড়াই ঘিরে লাখ লাখ টাকার জুয়া খেলা হয় বলে অভিযোগ রয়েছে। স্থানীয় প্রভাবশালী মহল এতে জড়িত। দেশের নানা প্রান্ত থেকে লোকজন আসে এই জুয়া খেলায় অংশ নিতে। অনেক পরিবার এসব জুয়া খেলার জন্য নিঃস্ব হয়ে গেছে। এ কারণে জেলা প্রশাসন থেকে এ খেলার ওপর নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। এ নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে গোপনে ষাঁড়ের লড়াইয়ের আয়োজন করা হচ্ছিল।

জেলা গোয়েন্দা পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) মো. ফরিদ আহম্মেদ আজ বিকেলে বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে আজ ভোর পৌনে পাঁচটার দিকে অভিযান চালিয়ে ওই আট জুয়াড়িকে আটক করা হয়েছে। এ সময় লড়াইয়ে অংশ নেওয়া দুটি ষাঁড় আটক করে ডিবি কার্যালয়ে এনে রাখা হয়েছে।

এসআই বলেন, ষাঁড়ের প্রকৃত মালিককে খোঁজা হচ্ছে। তাঁদের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। ওই মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে তাঁদের কারাগারে পাঠানো হয়েছে।