‘বেপরোয়া ড্রাইভিং বন্ধে ড্রাইভারদের জন্য ৪০ দিনের চিল্লা বাধ্যতামূলক করুন’

ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম | ডেস্ক রিপোর্ট


জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশের যুগ্ম মহাসচিব ও ঢাকা মহানগর জমিয়তের সভাপতি মাওলানা মঞ্জুরুল ইসলাম আফেন্দী বলেছেন, যানবাহনের ড্রাইভার, কণ্ট্রাকটার ও হেলপারদের বেপরোয়া মনোভাব ও অনৈতিকতা বন্ধে তাদেরকে তাবলীগ জামাতে ৪০ দিনের চিল্লায় যেতে বাধ্য করতে হবে আর তখনই শিক্ষিত-অশিক্ষিত, মাদকাসক্ত ও অনৈতিক চিন্তাধারার ড্রাইভারদের বেপরোয়া মনোভাব কমাতে ৯০ ভাগ সফলতা আনা সম্ভব হবে। এর কোন বিকল্প নেই। সরকার ও বিআরটিএ-এর কর্মকর্তাদেরকে তাবলীগ জামাতের মুরুব্বীদের সাথে কথা বলে এ বিষয়ে দ্রুত একটি পরিকল্পনা হাতে নিতে হবে। কারণ অন্য কোন পদ্ধতিতে তাদের মানসিকতার পরিবর্তন সম্ভব নয়।

আজ এক বিবৃতিতে তিনি আরো বলেন ৪০ দিনের চিল্লায় গিয়ে বহু খারাপ মানুষ ভাল হওয়ার অসংখ্য রেকর্ড রয়েছে। অধিকাংশ যন্ত্রযানের ড্রাইভার, হেল্পার ও কণ্ট্রাকটারগণ অসহিষ্ণু মেজাজ ও অসাদাচারণের কারণে বেপরোয়া গতিতে গাড়ী চালায়। কেউ বা নেশা খেয়ে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলে, কষনও তারা যাত্রীদের মারধরও করে। বাস না থামিয়ে যাত্রীদের নামতে বাধ্য করে। প্রতিযোগিতায় গিয়ে দুই বাসের চাপায় ফেলে ভয়াবহ পরিণতি ডেকে আনে। এ পরিস্থিতি দিন দিন বেড়েই চলছে। সাম্প্রতিক সময়ে বাস ও ট্রাকের চাপায় মৃত্যু ও হাত-পা বিচ্ছিন্ন হওয়ার মত অনেকগুলো ঘটনা ঘটেছে। একেকটি ঘটনা একেকটি পরিবারকে চরম বিপর্যয়ের দিকে ঠেলে দিচ্ছে। বোধ-বুদ্ধিহীন অনৈতিকতা, দায়িত্বহীনতা ও বেপরোয়া মনোভাবের কারণে নিজেদের জীবনের তোয়াক্কা না করে তারা এসব ঘটনাগুলো ঘটায়। এমতাবস্থায় তাদের সঠিক শিক্ষা ও মানসিকতার পরিবর্তনের বিকল্প কোন পদ্ধতি নেই। তাই তাদেরকে ৪০ দিনের চিল্লায় পাঠানো গেলে উপরোক্ত দুর্ঘটনাসমূহ অনেকাংশে কমে আসবে।