ছাত্র জমিয়তের ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত

ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম | ডেস্ক রিপোর্ট 


সরকার প্রধান কওমী মাদরাসার স্বীকৃতির ঘোষণা দিয়ে তা আজ পর্যন্ত বাস্তবায়ন করেনি। দেশের শীর্র্ষস্থানীয় উলামায়ে কেরামের সম্মূখে কওমী মাদরাসার সনদের স্বীকৃতির ঘোষনা দেন বর্তমান বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী। কিন্তু আজ পর্যন্ত তা বাস্তবায়ন হয়নি। অনুরূপভাবে আপামর ছাত্ররা কোটা বিরোধী আন্দোলন করেছিল। প্রধানমন্ত্রী সংসদে দাঁড়িয়ে ঘোষণা দেন যে, কোন কোটা থাকবে না। কিন্তু ঘোষণা ঘোষাণাই থেকে গেল, আজ পর্যন্ত তা বাস্তবায়ন হলো না। সরকার প্রধানের এরূপ প্রতারণামূলক আচরণ বরদাশ্ত করা যায় না। অচিরেই এসব কথার বাস্তবায়ন না হলে ছাত্র সমাজ রাজপথে নামতে বাধ্য হবে। ছাত্র জমিয়ত বাংলাদেশ আয়োজিত বন্ধুপ্রতীম ছাত্র সংগঠনের নেতৃবৃন্দের সম্মানে আয়োজিত ইফতার মাহফিলে উপরোক্ত কথা বলেন নেতারা।

আজ (৩১শে মে) বৃহস্পতিবার রাজধানীর নয়াপল্টনস্থ ‘হোটেল দা ক্যাপিট্যাল লিঃ এ ছাত্র জমিয়ত বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় সভাপতি মুফতী নাসির উদ্দীন খানের সভাপতিত্বে ও কেন্দ্রীয় ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক এম সাইফুর রহমানের পরিচালনায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব ও ঢাকা মহানগরী সভাপতি মাওলানা মনজুরুল ইসলাম আফেন্দী।

বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থ্তি ছিলেন কেন্দ্রীয় সহ সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা মুতীউর রহমান গাজীপুরী, শিল্প ও বাণিজ্য বিষয়ক সম্পাদক মুস্তফা মঈনুদ্দীন খান, প্রচার সম্পাদক মাওলানা জযনুল আবেদীন, মাওলানা আব্দুল গফফার ছয়ঘরী যুব জমিয়তের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক মুফতী গোলাম মাওলা, ছাত্র মজলিসের সাবেক সভাপতি মাওরানা রুহুল আমীন সাদী, জমিয়ত নেতা মাওলানা ইমরানুল বারি সিরাজী, ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় সংসদের দফতর সম্পাদক আব্দুস সাত্তার পাটোয়ারি, বাংলাদেশ জমিয়তে তালাবায়ে আরাবিয়ার কেন্দ্রীয় সভাপতি আব্দুর রহমান, ইসলামী ছাত্র সমাজের সভাপতি নুরুজ্জামান, বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্র মজলিসের সভাপতি রহমত আলী, মুসলিম ছাত্র লীগের সভাপতি আসাদ খান, আঞ্জুমানে তালামিযে ইসলামিয়ার সেক্রেটারী আখতারুজ্জামান, ইসলামি শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলনের সহসভাপতি সাইফুল ইসলাম, বাংলাদেশ ইসলামি ছাত্র খেলাফাতের সাংগঠনিক সম্পাদক মুহিউদ্দীন।

অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, ইনসাফ সম্পাদক সাইয়েদ মাহফুজ খন্দকার, পাক্ষিক সবার খবরের সম্পাদক মাওলানা আব্দুর গাফফার, ইসলামী লেখক ফোরামের সেক্রেটারি মাওলানা মুনিরুল ইসলাম, সিলেট রিপোর্ট এর সম্পাদক মুহাম্মদ রুহুল আমীন নগরী, আব্দুল ওহহাব হামিদী, মাওলানা মুসাদ্দিক আল মাদানী, ছাত্র জমিয়ত নেতা হাফিজ বুরহান উদ্দীন, আরিফুর রহমান, চৌধুরী নাসির আহমদ, আ খ ম সুহাইল আহমদ, এখলাসুর রহমান রিয়াদ,আহমদুল হক উমামা, শাহিন আহমদ, মাঈইনুদ্দীন মানিক, হুজায়ফা উমর, ফুযায়েল আহমদ,রেজওয়ান মাজহারি,মাহফুজ মাদানী,মারজানুল বারি সিরাজী প্রমুখ।
সভাপতির বক্তব্যে মুফতি নাসির উদ্দীন খান বলেন, প্রধানমন্ত্রী কওমী স্বীকৃতির প্রতিশ্রুতি দিলেও তিনি এখনো বাস্তবায়ন করেননি। জাতীয় সংসদে দাড়িয়ে কোটা বিরোধী আন্দোলনের ব্যাপারেও অনুরুপ ভাবে রহস্য জনক বক্তব্য দিয়ে ছাত্র সমাজের সাথে প্রতারনা করেছেন সরকার প্রধান।