কাশ্মিরে স্বাধীনতাকামীদের গ্রেনেড হামলায় পুলিশ সদস্যসহ আহত ১৬

ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম | ডেস্ক রিপোর্ট


ভারত নিয়ন্ত্রিত জম্মু-কাশ্মিরে অজ্ঞাত গেরিলাদের গ্রেনেড হামলায় চার পুলিশসহ ১৬ জন আহত হয়েছেন। এ নিয়ে কাশ্মিরে গত চার দিনে কমপক্ষে ১০টি গ্রেনেড হামলার ঘটনা ঘটল।

আজ (সোমবার) সোপিয়ানের বাটাপোরা চকে টহলরত পুলিশ বাহিনীকে লক্ষ্য করে গ্রেনেড হামলা চালালে সেটি লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়ে সড়কের ধারে বিস্ফোরণ হয়। এসময় চার পুলিশ সদস্য এবং ১২ বেসামরিক ব্যক্তি আহত হয়েছেন।

পুলিশের এক মুখপাত্র বলেন, ‘ওই হামলায় জখম ১২ জনের মধ্যে এক তরুণীও আছে। তার অবস্থা আশঙ্কাজনক। আহতদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

ওই ঘটনার পরে গোটা এলাকা ঘিরে ফেলে হামলাকারীদের সন্ধানে তল্লাশি চালানো হচ্ছে।

এদিকে, আজ দক্ষিণ কাশ্মিরের পুলওয়ামা জেলায় পুলিশ বাহিনীর সঙ্গে স্বাধীনতাকামী জনতার সংঘর্ষ হয়। গত ২৫ মে তঙ্গধার সেক্টরে পুলিশ বাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে যে পাঁচ স্বাধীনতাকামী নিহত হয়েছে, তাদের মধ্যে সিরাজ আহমদ শেখ নামে একজন লাজপোরা পুলওয়ামার বাসিন্দা বলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে খবর ছড়িয়েছে। তার পরিবারের পক্ষ থেকেও একই দাবি জানানো হয়েছে।

অন্য এক পরিবারের পক্ষ থেকেও নিহতদের মধ্যে মুদ্দাসির আহমেদ নামে স্থানীয় এক ব্যক্তি রয়েছেন বলে দাবি করা হয়েছে। পরিবারের পক্ষ থেকে পুলিশের কাছে মৃতদেহগুলো উত্তোলন করার দাবি জানানো হয়েছে যাতে তাদের যথাযথভাবে দাফন করা যায়।

একটি সূত্রে প্রকাশ, বাসিন্দাদের দাবির সত্যতা যাচাইয়ে তাদের লাশের ডিএনএ পরীক্ষা করা হতে পারে।

আজ ওই ঘটনাকে কেন্দ্র করে প্রতিবাদী তরুণরা সড়কে নেমে পুলিশ বাহিনীকে টার্গেট করে পাথর নিক্ষেপ করলে উভয়পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ শুরু হয়। ভারতীয় বাহিনী কাঁদানে গ্যাসের সেল নিক্ষেপ করে পরিস্থিতি মোকাবিলা করার চেষ্টা করে।


উৎস,  পার্সটুডে