কুলাউড়া ছাত্র মজলিসের কৃতি শিক্ষার্থী সংবর্ধনা ও ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত

ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম | এহসান বিন মুজাহির


মাদক সন্ত্রাস দুর্নীতি বাংলাদেশের অন্যতম জাতীয় সমস্যা। দেশের উন্নয়ন, দারিদ্র্য বিমোচন, মানুষের অধিকার প্রতিষ্ঠা, আইনের শাসন, সুশাসন ও সার্বিকভাবে ইতিবাচক সমাজ পরিবর্তনের পথে মাদক, সন্ত্রাস ও দুর্নীতি এক কঠোর প্রতিবন্ধক বলে মন্তব্য করেছেন ছাত্র মজলিসের নেতারা। রবিবার (১৭ রমজান) কুলাউড়া উপজেলা উত্তর ছাত্র মজলিসের কৃতি ছাত্র সংবর্ধনা ও ইফতার মাহফিল পূর্ব আলোচনায় বক্তারা এসব কথা বলেন।

বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্র মজলিস কুলাউড়া উপজেলা উত্তর শাখার উদ্যোগে ২০১৮ সালের এসএসসি ও দাখিল উত্তীর্ণ কৃতি ছাত্র সংবর্ধনা ও ইফতার মাহফিলের আয়োজন করা হয়।

ছাত্র মজলিস কুলাউড়া উপজেলা উত্তর সভাপতি সৈয়দ মাহবুবুর রহমানের সভাপতিত্বে ও শাখা সেক্রেটারি মঈনুল ইসলাম পায়েলের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতা করেন ছাত্র মজলিসের প্রাক্তন সেক্রেটারি জেনারেল প্রভাষক সাইফুর রহমান খোকন।

বিশেষ অতিথির বক্তৃতা করেন মৌলভীবাজার জেলা ছাত্র মজলিসের সাবেক সভাপতি প্রিন্সিপাল মাওলানা মুহাম্মদ এহসানুল হক, খেলাফত মজলিসের মৌলভীবাজার জেলা সহভাপতি হাফেজ মাওলানা জয়নাল আবেদীন, খেলাফত মজলিস কুলাউড়া উপজেলা সভাপতি মাওলানা জাফর আহমদ, সেক্রেটারি নেছার আহমদ, ছাত্র মজলিস মৌলভীবাজার জেলা প্রচার ও স্কুল বিষয়ক সম্পাদক মুজাহিদুল ইসলাম মামুন, সিলেট মহানগর ছাত্র মজলিসের প্রকাশনা ও মাদরাসা বিষয়ক সম্প্দ খালেদ সাইফুল্লাহ, কুলাউড়া উপজেলা ছাত্র মজলিসের সাবেক সভাপতি এমাদ উদ্দিন, সাইফুল ইসলাম কুতুব প্রমুখ।

শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন কুলাউড়া প্রেসক্লাব সভাপতি আজিজুল ইসলাম, দৈনিক মানবকণ্ঠের
মৌলভীবাজার জেলা প্রতিনিধি সাংবাদিক সেলিম আহমদ, কুলাউড়া উপজেলা ছাত্র মজলিস বায়তুলমাল সম্পাদক সালাহ উদ্দিন প্রমুখ। ।

প্রধান অতিথির বক্তৃতায় প্রভাষক সাইফুর রহমান খোকন বলেছেন-দেশের প্রশাসনের প্রত্যেক স্তর আজ দুর্নীতির আখড়ায় পরিণত হয়েছে। রাষ্ট্র ক্ষমতায় চেপে বসা অযোগ্য নেতৃত্বের কারণে শিক্ষাঙ্গনে সেশন জট, সরকার দলীয় ক্যাডারদের সন্ত্রাস ও সীমাহীন দুর্নীতি, বিভিন্ন পরীক্ষার প্রশ্নপত্র-খাতা ফাঁসসহ নানা অপতৎপরতায় বাংলাদেশের শিক্ষা ব্যবস্থা এখন ধ্বংসের কিনারায় উপনীত হয়েছে। বিদ্যমান জনসংখ্যাকে যথার্থ ব্যবহার করতে না পারায় দেশে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে বেকারত্বের হার। কাজেই দুর্নীতি সন্ত্রাস এবং জাতি বিনাশী শিক্ষার বিরুদ্ধে কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ করতে মেধাবী শিক্ষাার্থীসহ সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে।

বিশেষ অতিথির বক্তৃতায় শ্রীমঙ্গল আইডিয়াল স্কুলের প্রিন্সিপাল মাওলানা মুহাম্মদ এহসানুল হক বলেছেন-অযুত সম্ভাবনার দেশ বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সম্পদ এদেশের তরুণ মেধাবী শিক্ষার্থীরাই। যারা নিজেদের মেধাকে শাণিত করে নানা প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষায় কৃতিত্বের স্বাক্ষর রেখে মা-বাবা, পরিবার-পরিজনের মুখ উজ্জ্বল করে সমাজকে আলোকিত করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। কিন্তু ভাগ্যের নির্মম পরিহাস সমাজ বা রাষ্ট্র আমাদের পরবর্তী এ মেধাবী প্রজন্মকে তাদের যথাযথ মর্যাদা না দেয়ায় তারা বিপথেই পা বাড়াচ্ছে। এতে করে দেশের এসব মেধাবী প্রজন্ম সুপথে পরিচালিত না হওয়ায় আমরা আমাদের বিদ্যমান জনসংখ্যাকে দেশের জন্য সম্পদ হিসেবে ব্যবহার করতে পারছি না। দেশে বিদ্যমান রাজনৈতিক লেজুড়বৃত্তির কারণে সম্ভাবনাময় মেধাবী শিক্ষার্থীরা উচ্চ শিক্ষাঙ্গনে গিয়েও বিভিন্ন অপরাধ কর্মে জড়িত হচ্ছেন। এসব অবস্থা থেকে বেরিয়ে আসতে হবে। এক্ষেত্রে মেধাবী শিক্ষার্থীদের যোগ্য নেতৃত্বের মাধ্যমে নিজের মেধা ও যোগ্যতা দিয়ে দেশকে এগিয়ে নেয়ার সিদ্ধান্ত নিতে হবে। কৃতি সংবর্ধনায় তিনি আরো বলেন, সমাজকে মাদক, ইয়াবাহ, অপসংস্কৃতিসহ যাবতীয় অপরাধমুক্ত করতে কৃতি শিক্ষার্থীদের সিদ্ধান্ত নিতে হবে। কৃতি ছাত্রছাত্রীরা চাইলে নিজের মেধা ও মনন দিয়ে অনেক কিছু করতে পারবে। তাদের সঠিক সময়ে সঠিক সিদ্ধান্ত নিতে হবে। তাহলে দেশ কাঙ্খিত লক্ষ্যে পৌঁছতে পারবে।

অন্যান্য বক্তারা বলেন-মেধাবী শিক্ষার্থীদের সঠিক পথ নির্দেশনা প্রদানের মাধ্যমে একটি দুর্নীতিমুক্ত-সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়তে ছাত্র মজলিস নিরলস পরিশ্রম করে যাচ্ছে। আজ মেধাহীন ও সন্ত্রাস নির্ভর ছাত্র রাজনীতির বিপরীতে ছাত্র মজলিস এদেশের লক্ষ তরুণ ছাত্র সমাজের কাছে প্রিয় ঠিকানা হিসেবে পরিণত হয়েছে। বক্তারা মেধাবী শিক্ষার্থীদের রাজনীতির কালো থাবায় না জড়িয়ে সঠিক শিক্ষা গ্রহণ করে নিজেকে যোগ্য নাগরিক হিসেবে গড়ার মাধ্যমে সম্ভাবনার বাংলাদেশকে বিশ্ব দরবারে এগিয়ে নেয়ার আহ্বান জানান।