খালেদা জিয়ার চিকিৎসা বিলম্বের নেপথ্যে গভীর ষড়যন্ত্র রয়েছে: মির্জা ফখরুল

ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকমর | নিজস্ব প্রতিনিধি


বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, “বর্তমান ভোটারবিহনী অবৈধ সরকারকে সরিয়ে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে, গণতন্ত্রের মাতাকে মুক্ত করতে হবে। বেগম জিয়ার মুক্তি ছাড়া এ দেশে কোনও কিছুই সম্ভব নয়। আমরা এই সরকারকে সরিয়ে দেশনেত্রীকে মুক্ত করবোই।”

বুধবার রাজধানীর বিজয়নগরে এক হোটেলে বাংলাদেশ লেবার পার্টি আয়োজিত ইফতার মাহফিলে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, “এই সরকারকে সরাতে জাতীয় ঐক্য সৃষ্টি করতে হবে। গণতন্ত্র ও মানুষের অধিকার ফিরিয়ে দিতে হবে। আন্দোলনের মধ্য দিয়ে আমাদের বিজয়ী হতে হবে। দেশনেত্রীকে মুক্ত করতে হবে। সুষ্ঠু নির্বাচনের স্বার্থে নির্বাচন কমিশন পুনর্গঠন করতে হবে। সোনাবাহিনী মোতায়েন করে নিরপেক্ষ সরকারের অধিনে নির্বাচন দিতে হবে।”

মির্জা ফখরুল বলেন, “সমস্ত আইনগত বিষয়ে হাইকোর্ট থেকে জামিন পাওয়ার পরও তাঁকে (খালেদা) মুক্তি দেয়া হয়নি। কী করে খালেদা জিয়াকে রাজনীতি থেকে দূরে সরিয়ে দেয়া যায়, জনগণের কাছ থেকে দূরে সরিয়ে দেয়া যায়- সেই চেষ্টাই করছে বর্তমান স্বৈরাচারি সরকার।”

এসময় বিএনপি মহাসচিব আরও বলেন, “আমরা খুব সুনির্দিষ্টভাবে বলেছি, জেল কোর্ডের কোথাও বলা নেই যে সরকারি হাসপাতালেই চিকিৎসা করাতে হবে। পরিবার থেকে চিকিৎসা ব্যয় বহন করা হবে। এক্ষেত্রে বিলম্ব করা মানেই এর নেপথ্যে গভীর ষড়যন্ত্র আছে। অবিলম্বে খালেদা জিয়ার পছন্দ অনুযায়ী ইউনাইটেট হাসপাতালে চিকিৎসার দাবি জানাচ্ছি।”