ফিলিস্তিন ইস্যু; জাতিসংঘকে ওআইসির অভিনন্দন

ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম | বেলায়েত হুসাইন



যুদ্ধাহত ফিলিস্তিনিদের আন্তর্জাতিক সুরক্ষা নিশ্চিত করতে জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদ একটি রেজল্যুশন খসড়া গ্রহণ করায় গতকাল বৃহস্পতিবার জাতিসংঘকে অভিনন্দন জানিয়েছে ওআইসি।

তুরস্ক এবং আলজেরিয়ার আবেদনের প্রেক্ষিতে জাতিসংঘ এই খসড়ার অনুমোদন দেয়।
ফিলিস্তিনের পক্ষে ও বিপক্ষের শক্তিসমূহ নির্নয় করার জন্য জাতিসংঘ যে ভোটের আয়োজন করেছে-সেই ভোটের ফলাফল প্রাপ্তির পরে এই উদ্যোগ গ্রহণ করা হলো।
ফিলিস্তিনিদের পক্ষে জাতিসংঘ কর্তৃক উল্লেখিত সুরক্ষা বিধান আহবানে ১২০ টি দেশ জাতিসংঘের সাথে সহমত পোষণ করে, ৮ টি দেশ বিরোধিতা করে এবং ভোট দেওয়া থেকে বিরত থাকে ৪৫ টি দেশ।

ওআইসি তুর্কী সংবাদমাধ্যম আনাতোলিয়াকে এক বিবৃতিতে বলেছে, জাতিসংঘ কর্তৃক ফিলিস্তিনিদের অধিকার রক্ষা ও নিরাপত্তার জন্য নেয়া সিদ্ধান্তে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের ব্যাপক সমর্থন প্রতিফলিত হয়েছে।
ওআইসি এটিকে বিচারকার্য, জবাবদিহিতা, আন্তর্জাতিক মানবতাবিরোধী আইন ও আন্তর্জাতিক বৈধতার প্রাসঙ্গিক মীমাংসার পথে একটি উপযুক্ত আন্তর্জাতিক অবস্থান হিসেবে বিবেচনা করছে।

সংস্থার মহাসচিব, ইউসুফ বিন আহমদ আল উসাইমিন বিষয়টিকে খুব গুরুত্বপূর্ণ ও মূল্যবান আখ্যা দিয়ে বলেন, ফিলিস্তিনিদের যখন দেয়ালে পিঠ ঠেকেছে, দখলদার ইসরাইলের হামলায় যখন ফিলিস্তিনের গাজাসহ প্রতিটি জমিন আক্রান্ত-তখনি এই সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হলো।

উল্লেখ্য যে, ১৯৪৮ সালে অবৈধভাবে ইসরাইল ফিলিস্তিনি ভূমি দখল করার পর থেকে এখন পর্যন্ত স্বদেশ ফিরে পাবার আন্দোলনে অংশগ্রহণকারী হাজার হাজার ফিলিস্তিনি নাগরিক ইসরাইলি হামলায় প্রাণ হারিয়েছে।
সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্র কর্তৃক তেল আবিবের পরিবর্তে পবিত্র নগরী জেরুজালেমকে ইসরাইলের রাজধানী ঘোষণা করায় এর বিরুদ্ধে আন্দোলনে নামে লক্ষলক্ষ ফিলিস্তিনি জনতা। জাতিসংঘের হিসেব অনুযায়ী এই অল্প সময়েই ইসরাইলি সেনাবাহিনী কমপক্ষে ১২৮ জন বেসামরিক লোককে শহিদ করেছে এবং ওদের হামলার শিকার হয়ে আহত হয়েছেন প্রায় ১৪ হাজার ৭ শত ফিলিস্তিনি নাগরিক।