হাটহাজারী মাদরাসায় আগত নবীন শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে আল্লামা শফী’র নসীহত

ইনসাফ টোয়েন্টিফর ডটকম | আলামিন ফারাজ


উম্মুল মাদারিস দারুল উলূম মূইনুল ইসলা হাটহাজারী মাদরাসায় আগত ১৪৩৯-৪০ হিজরী শিক্ষাবর্ষের নবীন ছাত্রদের উদ্দেশ্যে শায়খুল ইসলাম আল্লামা শাহ আহমদ শফী গুরুত্বপূর্ণ দিকনির্দেশনা মূলক নসীহত দিয়েছেন।

গতকাল ২৩ জুন (শনিবার) বাদ জোহর জামিয়ার বাইতুল করীম মসজিদে আগত নবীন ছাত্রবৃন্দের উদ্যেশে আল্লামা শফী বলেন, আপনারা বহুদুর হতে এখানে এসেছেন ইলমে নববীর ইলম অর্জন করতে। আপনাদের আসা, ইলম অর্জন করা সবকিছু নিয়তের উপর নির্ভরশীল। ইমাম বুখারী রহ. তার বিখ্যাত গ্রন্থ বুখারী শরীফের প্রথম হাদীছে উল্লেখ করেছেন, নিশ্চয় সমস্ত আমল নিয়তের উপর নির্ভরশীল। এবং শেষ হাদীছে আমলের পরিমাপের কথা বলেছেন। তাই আপনারা সর্বপ্রথম নিয়তকে পরিশুদ্ধ করুন।

তিনি বলেন, এখানে আসার পূর্বে আপনারা অনেক মাদরাসা পড়েছেন। প্রত্যেক প্রতিষ্ঠানের আলাদা কিছু নিয়ম-কানুন থাকে। এখানেও তার বিপরীত নয়। আপনারা এই মাদ্রাসার কানুনের উপরে চলবেন। উস্তাদদেরকে শ্রদ্ধা ও সম্মান করবেন। তাদের আদর্শ অনুসরণ করবেন। কে কোন পদে আছেন, সেটা জেনে নিবেন। মাদরাসার কোন জায়গায় দপ্তর, কোথায় তালিমাত, গ্রন্থাকার কোথায়, মুহতামিম সাহেবের কার্যালয় কোথায় তাও জেনে নিবেন।

শাইখুল ইসলাম বলেন, শুধু ইলম থাকলেই চলবেনা। ইলম অনুযায়ী আমলও করবেন। আমল বিহিন ইলমের কোন মূল্য নেই।

ছাত্রদের উদ্দেশ্যে জামিয়ার প্রধান বলেন, প্রতিদিন তাহাজ্জতের নামায আদায় করার আপ্রাণ চেষ্টা করবেন। তারপর কিছুসময় কুরআনুল কারীম তেলাওয়াত এবং যিকর করে কিতাব মুতালাআ করুন। আপনাদের ইলমে বরকত হবে। ইশরাক ও আওয়াবীন নিয়মিত আদায় করুন। বাবা-মা আপনাদের পেছনে যে টাকা খরচ করছেন, তা ব্যর্থ হতে দিবেন না।

তিনি আরো বলেন, অযথা সময় নষ্ট করবেননা। সময়ের মূল্যায়ন করুন। তালেবে ইলমের যিন্দেগীকে গনীমত মনে করুন। নিজের আত্মাকে পরিশুদ্ধ করুন। যেকোন কাজ ইখলাছের সহিত করুন। কোন কাজে ইখলাছ থাকলে আল্লাহ তা’আলা তা দ্রুত কবুল করে নেন। আপনারা বাজারে বাজারে ঘুরাফেরা করবেন না। সাথীদের সাথে সৌহার্দ্য ও সম্প্রীতি বজায় রাখবেন। আপনারা অনেক মায়ের সন্তান। কিন্তু এক মায়ের সন্তানের মতো অবস্থান করবেন। ঝগড়াবিবাদ করবেন না। একনিষ্ঠভাবে কিতাব মুতালাআ করবেন।

শাইখুল ইসলাম আল্লামা শফী বলেন, যারা উর্দু বা ফার্সী জানেন না, তারা শীঘ্রই এগুলো শিখে নিন। কেননা, তাছাউফের জগত রয়েছে ফার্সীভাষায়। আর উর্দুভাষায় রয়েছে জ্ঞানের এক বিশাল জগত। যারা এগুলো জানেন না তারা এর থেকে মাহরুম হবেন। আল্লাহ তা’আলা আপনাদের সবাইকে বড় বড় আলেম, মুফতি ও মুহাদ্দিছ হওয়ার তাওফিক দান করুন।