কয়েকটি সাদামাটা প্রশ্ন!

জহির উদ্দিন বাবর


গুলশানে হামলার ঘটনায় নিহত জঙ্গিদের মধ্যে আওয়ামী লীগের এক নেতার ছেলেও রয়েছেন। আওয়ামী লীগ না হয়ে ছেলেটা যদি বিএনপি বা জামায়াতের কোনো নেতার হতো তাহলে এতক্ষণে মিডিয়া আর কথিত সুশীল সমাজের ভূমিকা কী হতো?

এতদিন যারা জঙ্গিবাদের অশুভ ইঙ্গিত কওমি মাদরাসাগুলোর দিকে করতেন আর মাদরাসা শিক্ষা বন্ধ করে দেয়ার দাবি তুলতেন তারা কি এবার নর্থ-সাউথ আর স্কলাস্টিকা বন্ধের দাবি তুলবেন?

২২ জনকে হত্যার পর ছয় জঙ্গিকে মেরে ‘অভিযান সফল’ বলে যারা তৃপ্তির ঢেঁকুর তুলছেন তাদের কাছে কি ২২ জনের প্রাণের কোনোই মূল্য নেই?

অস্ত্রধারী ছয় জঙ্গিকে নিবৃত্তের জন্য সেনাবাহিনী, নৌবাহিনী, র‌্যাব, পুলিশ, বিজিবি রাতভর অপেক্ষা করেছে সকাল হওয়ার জন্য। মতিঝিলের শাপলায় নিরীহ আলেম-ওলামাকে সেখান থেকে সরানোর জন্য সকাল পর্যন্ত কি অপেক্ষা করা যেতো না?

………….জানি প্রশ্নগুলোর উত্তর মিলবে না। তবুও করে রাখলাম। কোনোদিন হয়তো মিলতেও পারে। সেই সুদিনের অপেক্ষায় বাংলাদেশ।


লেখক :
আলেম, কলামিস্ট
সাধারণ সম্পাদক, ইসলামী লেখক ফোরাম বাংলাদেশ
যুগ্ম বার্তা সম্পাদক : ঢাকাটাইমস


 ফেসবুক থেকে