নির্বাচনের নামে রাষ্ট্রীয় খরচে তামাশার আয়োজন করা হচ্ছে : নেজামে ইসলাম

ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম | জুবাইর আহমাদ নকী


বাংলাদেশ নেজামে ইসলাম পার্টির ঢাকা মহানগর আয়োজিত ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে। এতে সভাপতিত্ব করেন পার্টির ঢাকা মহানগর সভাপতি ও কেন্দ্রীয় সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব মাওলানা মুসা বিন ইজহার।
প্রধান অতিথি ছিলেন পার্টির মহাসচিব মাওলানা আবদুল মাজেদ আতহারী।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে মাওলানা আবদুল মাজেদ আতহারী বলেন, গাজীপুর সিটি নির্বাচনের নামে সরকার রাষ্ট্রীয় খরচে তামাশার আয়োজন করেছিল। রাষ্ট্রের কোটি কোটি টাকা খরচ করে এ ধরণের তামাশা করার কোন অধিকার সরকারের নেই।

তিনি আরো বলেন, আওয়ামী লীগ সরকার দেশের নির্বাচন ব্যবস্থাকে সম্পূর্ণ ধ্বংস করে দিয়েছে, এই দেশে এখন নির্বাচন বলতে কিছু নেই, যা আছে তা হচ্ছ রাষ্ট্রীয় খরচে তামাশা।

তিনি আরও বলেন, গাজীপুর সিটি নির্বাচনের মধ্য দিয়ে সরকার আবারো প্রমান করেছে, তাদের অধীনে কোন নির্বাচনই সম্ভব না। এই নির্বাচনে ভোট ডাকাতির মাধ্যমে সরকার নিজেইরাই এটা সত্যায়িত করলো যে, নিরপেক্ষ তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচন না দিলে, এই দেশে সুষ্ঠু নির্বাচন সম্ভব না।

সভাপতির বক্তব্যে মাওলানা মুসা বিন ইজহার বলেন, সাধারণ ছাত্রদের যৌক্তিক দাবি কোটা সংস্কারের আন্দোলনে নেতৃত্ব দেয়া শিক্ষার্থীদের নির্মম ভাবে ছাত্রলীগের সন্ত্রাসীরা নির্যাতন করেছে, তা কোন সভ্য দেশের শিক্ষিত মানুষের কাজ হতে পারেনা। তিনি বলেন, সারা দেশের মানুষ দেখেছে, কোটা বিরোধী আন্দোলনের নেতা নূরকে কিভাবে নির্মম ভাবে পিটিয়ে রক্তাত করা হয়েছে। আমরা এ ঘটনার তীব্র নিন্দা জানাই।

তিনি বলেন, সরকারের মদদ ছাড়া তাদের ছাত্র সংগঠন কখনোই এহেন কাজ করার সাহস করত না। আমরা মনে করি সরকারের নির্দেশেই ছাত্রলীগ সন্ত্রাসীরা সাধারণ শিক্ষার্থীদের ওপর এই নির্মম নির্যাতন চালিয়েছে।

তিনি সরকারকে স্মরণ করিয়ে দিয়ে বলেন, সরকারকে ভুলে গেলে চলবে না, এই দেশে স্বাধিকার আন্দোলন থেকে শুরু করে স্বৈরাচার বিরোধী আন্দোলনগুলোতে নেতৃত্ব দিয়েছে এই ছাত্ররা। তাই তাদের ওপর এই জুলুম নির্যাতনের পরিনাম কখনোই ভালো হবে না।

মাওলানা মুসা বিন ইজহার বলেন, আমরা সরকারের কাছে দাবি জানাচ্ছি, সাধারণ ছাত্রদের নির্যাতন করা সন্ত্রাসীদের গ্রেপ্তার করা হোক, এবং শিক্ষার্থীদের যৌক্তিক দাবি মেনে নেয়া হোক।

সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন পার্টির কেন্দ্রীয় নেতা মুস্তাফিজুর রহমান মাহমুদী, মাওলানা আনোয়ারুল কবীর, মহানগর সহ সভাপতি মুফতি ইকরামুল হক, মুফতি আজিজুল হক শেখ সা’দী, মাওলানা মাতলুবুর রহমান, পার্টির মহানগর সেক্রেটারি মুফতি দিলাওয়ার হুসাইন মাইজী, সংগঠন সচিব মাওলানা গোলাম কিবরিয়া, দফতর সচিব মুফতি শুআইব আহমাদ, প্রচার সচিব মাওলানা জহিরুল ইসলাম, অর্থ সচিব মাওলানা তালহা, মাওলানা মুহিব্বুল হাসান ও মাওলানা হাবিবুর রহমান প্রমুখ।