হাটহাজারী মাদরাসায় মুতাফাররকা থেকে কুদুরী পর্যন্ত পাঠদান উদ্বোধন করলেন আল্লামা শফী

ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম |  জুনাইদ আহমদ


হাটহাজারী মাদরাসার মুতাফাররকা বিভাগ থেকে কুদুরী পর্যন্ত ক্লাস সমূহের ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষের নতুন সবক শুরু হয়েছে ৷

শনিবার ৩০ শে জুন সকাল ১১ টায় জামিয়ার বায়তুল আতীক মসজিদে শায়খুল ইসলাম আল্লামা শাহ আহমদ শফী পাঠদান ও দুআর মাধ্যমে নতুন শিক্ষাবর্ষের সবকের শুভ উদ্বোধন করেন৷ এতে মুতাফাররকা থেকে কুদুরী পর্যন্ত সকল ছাত্র উপস্থিত ছিল৷

পাঠদানপূর্বে ছাত্রদের উদ্যেশ্যে দিকনির্দেশনা মূলক বক্তব্য প্রদান করেন শায়খুল ইসলাম আল্লামা শাহ আহমদ শফী৷

তিনি বলেন,শিক্ষাগত যোগ্যতা ছাড়া একজন মানুষের কোন মূল্য নেই। ইসলামী শিক্ষা সর্বশ্রেষ্ঠ শিক্ষ। এই শিক্ষা অর্জন করলে ইহকাল-পরকাল উভয় জাহানে সফলকাম হওয়া যাবে। তাই সময়ের সদ্ব্যবহার করে মনোযোগ সহকারে লেখাপড়া করতে হবে।

হস্তলিপী সুন্দর করার প্রতি গুরুত্বারোপ করে আল্লামা শফী বলেন,আমাদের মধ্যে প্রচলিত হলো ‘পড়ালেখা’ মূলত কথাটা হলো ‘লেখা-পড়া’। আগে লেখা তারপর পড়া। তাই হাতের লিখা সুন্দরের প্রতি আমাদের যত্নবান হতে হবে।

তিনি আরো বলেন, ছাত্র তিন প্রকার। মেধাবী, মধ্যম ও দুর্বল। ক্লাসে যারা দুর্বল তাদের সবক শেখানোর দায়িত্ব মেধাবীদের উপর ন্যাস্ত করবে। সবাই যেন সবসময় সবকে উপস্থিত থাকে।

শায়খুল ইসলাম বলেন, তোমরা যে যে বিভাগে পড়, ঐ বিষয়ে কথা বলা শিখতে হবে। বাংলা, আরবী, ইংরেজি, উর্দু ইত্যাদি। এগুলো শেখার নিয়ম হচ্ছে, প্রথমে শরীরের অঙ্গ-প্রত্যঙ্গের শব্দাবলী শিখে নিবে। তারপর খাদ্য-দ্রব্য ও আহার সংক্রান্ত বস্তুগুলো শিখে নিবে।

ছাত্রদের লেখা-পড়া’র মানোন্নয়নের লক্ষে যুগোপযোগী পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে বলেও জানান জামিয়ার মহাপরিচালক শাইখুল ইসলাম আল্লামা শাহ আহমদ শফী।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন,জামিয়ার মুহাদ্দীস মাওলানা মুহাম্মাদ ওমর মেখলী, সহযোগী শিক্ষাপরিচালক মাওলানা মুহাম্মাদ আনাস মাদানী, মুফতী আবু সাঈদ, মুফতী রাশেদ ও মুফতী আব্দুল হামীদ প্রমূখ।