‘ইসলামের পুর্ণাঙ্গ দাওয়াত মানুষের মাঝে তুলে ধরে সমাজের সকল কুসংস্কার রুখে দিতে হবে’

ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম | ডেস্ক রিপোর্ট


তরুণওয়ায়েজীনদের সম্মেলিত প্লাটফর্ম ইত্তেফাকুল ওয়ায়েজীন বাংলাদেশের জাতীয় কাউন্সিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। কাউন্সিলে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, ইসলমী আন্দোলন বাংলাদেশের যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা এ.টি.এম হেমায়েত উদ্দীন। বক্তব্য রাখেন মাসিক আদর্শ নারী সম্পাদক মুফতী আবুল হাসান শামসাবাদী, তালীমুল ইসলাম ইনস্টিটিউট এন্ড রিসার্চ সেন্টারের পরিচালক মুফতী লুৎফুর রহমান ফরায়েজী, ইসলামী ঐক্যজোটের সহকারী মহাসচিব মাওলানা আলতাফ হোসাইন ও মাওলানা আব্দুল খালেক শরিয়তপুরী প্রমূখ।

রাজধানীর পল্টনস্থ ফটো জার্নালিস্ট মিলনায়তনে সংঠনটির আহ্বায়ক মুফতী ওমর ফারুক যুক্তিবাদীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত জাতীয় কাউন্সিল অনুষ্ঠিত হয়। উন্সিল শেষে ১০১ সদস্য বিশিষ্ট কেন্দ্রীয় কমিটি ঘোষণা করা হয়। মুফতী ওমর ফারুক যুক্তিবাদীকে সভাপতি ও মাওলানা ইউসুফ বিন এনাম শিবপুরীকে মহাসচিব করে ঘোষিত কমিটিতে নির্বাহী সভাপতি করা হয়েছে মাওলানা ইসমাইল হোসেন সিরাজীকে। সিনিয়র সহ-সভাপতি করা হয়েছে মাওলানা এম. আনোয়ারুল ইসলাম জিহাদীকে। সহ-সভাপতি করা হয়েছে মুফতি ওসমান গণি মুছাপুরী, মুফতী ইয়াসিন আহমদ ফারুকী, মুফতী আ. আলীম ফরিদী, মুফতী খালিদ সাইফুল্লাহ নোমানী, মাওলানা শফিকুল ইসলাম সাদী ও মাওলানা সুলতান মাহমুদ দিনাজপুরীকে। সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব করা হয়েছে মাওলানা ফরহাদ হোসাইন অাশরাফীকে। যুগ্ন মহাসচিব করা হয়েছে মুফতি সুলাইমান জামালপুরী ও মুফতী ফরিদুজ্জামান মুখতারীকে।

এছাড়াও মুফতী ইজহারুল হক আরেফীকে সাংগঠনিক সম্পাদক, মাওলানা আব্দুল বাছির গফুরীকে সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক, মুফতী জাহিদ হাসান জামালপুরীকে কোষাধ্যক্ষ, মাওলানা জহিরুল ইসলাম নাজিরীকে প্রচার সম্পাদক,মুফতী তরিকুল ইসলাম ইউসুফীকে সহ-প্রচার সম্পাদক, মুফতী আজিজুল হক ইয়াকুবীকে দপ্তর সম্পাদক, মুফতী আবু তাহের সিদ্দিকীকে সাহিত্য সম্পাদক, মাওলানা আব্দুল্লাহ শাহবাজপুরীকে সমাজ কল্যাণ সম্পাদক, মুফ্তী এনামুল হক আশ্রাফীকে আইন বিষয়ক সম্পাদক, মাওলানা শুয়াইব আহমদ আল-বরুনীকে মিডিয়া সম্পাদক, হাফেজ মাওলানা আজির উদ্দীনকে সাংস্কৃতিক সম্পাদক করে ১০১ সদস্য বিশিষ্ট কেন্দ্রীয় কমিটি ঘোষণা করা হয়।

কাউন্সিলে জাতীয় নেতৃবৃন্দ বলেন, দেশের সার্বিক পরিস্থিতি ভাল নয়। মানুষ ঈমান ও আমল নিয়ে বেঁচে থাকা অত্যন্ত কঠিন হয়ে পড়েছে। এমতাবস্থায় ইসলামের পুর্ণাঙ্গ দাওয়াত মানুষের মাঝে তুলে ধরে সমাজের সকল কুসংস্কার রুখে দিতে হবে।

নেতৃবৃন্দ আরো বলেন, ইসলাম পরিপূর্ণ জীবন ব্যবস্থার নাম। ইসলামের আইন সর্বোকৃষ্ট আইন, ইসলামের অর্থ ব্যবস্থা সর্বোকৃষ্ট অর্থব্যবস্থা, সমাজ ব্যবস্থা, রাষ্ট্র ব্যবস্থা সর্বোকৃষ্ট ব্যবস্থা। বয়ানের মাধ্যমে জাতির সামনে তুলে ধরতে হবে। এভাবেই মানুষ একদিন ইসলামের ছায়াতলে আশ্রয় নিবে। ইত্তেফাকুল ওয়ায়েজীন এ কাজটুকু করতে পারবে বলে আমাদের বিশ্বাস।