হাটহাজারী মাদরাসার নতুন শিক্ষাবর্ষের পাঠদান শুরু করলেন আল্লামা শফী

ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম | আব্দুল্লাহ আল মুনীর


এশিয়ার বৃহত্তম ইসলামী শিক্ষাপীঠ আল জামিয়াতুল আহলিয়া দারুল উলুম মুঈনুল ইসলাম হাটহাজারী মাদরাসার ২০১৮-১৯ নতুন শিক্ষাবর্ষের পাঠদান উদ্বোধন করেছেন শাইখুল ইসলাম আল্লামা শাহ আহমদ শফী।

আজ শনিবার (৭ জুলাই) সকাল সাড়ে দশটায় শরহে জামী হতে দাওরায়ে হাদীস পর্যন্ত সকল বিভাগের ইফতেতাহী দরস বা সুচনা পাঠ জামিয়ার দারুল হাদীস মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়েছে। প্রত্যেক কিতাবের প্রথম দরস উদ্বোধন করেন জামিয়ার মহাপরিচালক শায়খুল ইসলাম আল্লামা শাহ আহমদ শফী। এ সময় জামিয়ার সুপ্রশস্ত দারুল হাদীস মিলনায়তন ও বারান্দায় ছাত্রদের জমায়েতে তিল ধারণের ঠাঁই ছিল না।

কুরআন মাজীদের তিলাওয়াত দ্বারা শুরু হয় এ অনুষ্ঠান। তারপর ধারাবাহিকভাবে তাফসীরে বায়যাভী, তাফসীরে ইবনে কাসীর, বুখারী শরীফ, মুসলিম শরীফ, তিরমিযী শরীফ, আবু দাউদ শরীফ, জালালাইন শরীফ, মিশকাত শরীফ, হিদায়া, শরহে বেকায়া, নুরুল আনওয়ার, শরহে জামী, কানযুদ্দাকায়েক কিতাবের ইফতেতাহী প্রথম দরস প্রদান করেন আল্লামা শফী।

দরস শেষে জামিয়ার ছাত্রদের উদ্যেশ্যে নসিহত পেশ করেন শাইখুল ইসলাম আল্লামা শাহ আহমদ শফী।

সংক্ষিপ্ত নসিহতে তিনি বলেন, “আজ নতুন বৎসরে সব কিতাবগুলোর দরস শুরু হলো। আপনাদের প্রতি অনুরোধ থাকবে, প্রত্যেক কিতাব ভালোভাবে মুতাআলা করবেন। নাহু সরফ ও আদবের ভিত্তিতে কিতাবগুলোকে গবেষণা করে পড়বেন। নিয়মিত তাকরার করবেন,পড়া না বুঝে সামনে এগোবেন না। যারা মেধাবী আছেন, কিতাব ভালোভাবে বুঝেন, তারা দুর্বল ছাত্রদের প্রতি সহানুভূতি প্রদর্শন করবেন।
আমালের প্রতি গুরুত্বারোপ করে আল্লামা শফী বলেন, তাহাজ্জুদ, ইশরা্‌ আওয়াবীন, চাশতসহ সকল নফল নামাজের প্রতি গুরুত্ব দিবেন।

মোনাজাতের মাধ্যমে অনুষ্ঠান সমাপ্ত হয়। ইফতেতাহী দরসের এ অনুষ্ঠানে জামিয়ার সমস্ত আসাতিযাগণ উপস্থিত ছিলেন৷