বগুড়ায় ছাত্রীকে ধর্ষণ করা অবস্থায় ওলামালীগ সভাপতি গ্রেফতার

bogra_pic_jugantor_3833ছাত্রীর সাথে জোরপূর্বক যৌন নির্যাতনের সময় আপত্তিকর অবস্থায় গ্রেফতার হয়েছেন বগুড়ার সোনাতলা উপজেলা ওলামালীগের সভাপতি। তার নাম ফজলুল করিম।

আজ বুধবার দুপুর ১টা দিকে মাদ্রাসার ছাত্রীদের নামাজ ঘর থেকে পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে। তার বিরুদ্ধে ধর্ষন মামলা দায়েরের প্রক্রিয়া চলছে।

জানা গেছে, আজ বুধবার দুপুর আনুমানিক ১টার দিকে সোনাতলা উপজেলা ওলামালীগের সভাপতি ফজলুল করিম আলিম ক্লাশের এক ছাত্রীকে মাদ্রাসা ভবনের ২য় তলায় ছাত্রীদের নামাজ ঘরে ডেকে নেয়। এরপর জোরপূর্বক ওই ছাত্রীকে ধর্ষন করে। ধর্ষিতা ছাত্রীর চিৎকারে মাদ্রাসার ছাত্র-শিক্ষকরা ছূটে গিয়ে তাকে উদ্ধার করে এবং ফজলুল করিমকে আটক করে। খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে তাকে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে যায়।

সোনাতলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল মোত্তালেব ওলামালীগ সভাপতিকে গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, তার বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা দায়েরের প্রক্রিয়া চলছে।

অপরদিকে, ওলামালীগ সভাপতি কর্তৃক ছাত্রীকে ধর্ষণের খবর এলাকায় ছড়িয়ে পড়ার পর সোনাতলার মানুষ বিক্ষুব্ধ হয়ে উঠেছেন। ধর্ষকের বিচারের দাবীতে মাদরাসার শিক্ষক, ছাত্র-ছাত্রী ও অভিভাবকরা তাৎক্ষনিকভাবে বিক্ষোভ মিছিল বের করে। এসময় বিক্ষুব্ধ জনতা ধর্ষকের সহযোগী হিসেবে পরিচিত মাদ্রাসার করনিকের বাড়ীতে ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করে। বিক্ষোভ মিছিল শেষে উপজেলা পরিষদ চত্বরে প্রতিবাদ সমাবেশ করা হয়।