জানুয়ারি ২৪, ২০১৭

রমজানের ঐ রোজার শেষে এলো খুশির ঈদ

ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম |

eid372 [Converted]এক মাস সিয়াম সাধনার পর এলো খুশির ঈদ। আর পবিত্র ঈদুল ফিতর উদযাপনের জন্য প্রস্তুত বাংলাদেশসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশের মুসলমানরা।

বৃহস্পতিবার বাংলাদেশে উদযাপিত হবে পবিত্র ঈদুল ফিতর। চাঁদ দেখার পর এখন ঘরে ঘরে চলছে পিঠা-পায়েস বানানোর তোড়জোড়।
পাড়া-মহল্লার মসজিদ থেকেও ভেসে আসছে ‘ঈদ মোবারক’ ধ্বনি। শিশু-তরুণ-বৃদ্ধ সবাই প্রস্তুতি নিচ্ছে আগামীকাল ঈদগায়ে গিয়ে নামাজ আদায়ের।

ঈদ ধনী-গরিব সব মানুষের মহামিলনের বার্তা নিয়ে আসে। ঈদের দিন ধনী-গরিব, মালিক-শ্রমিক নির্বিশেষে সব মুসলমান এক কাতারে ঈদের নামাজ আদায় এবং একে অপরের সঙ্গে কোলাকুলি করেন। এতে ধ্বনিত হয় সাম্যের জয়গান। এদিক থেকে ঈদ কেবল আনন্দের বার্তাই নিয়ে আসে না, ইসলামের সাম্য আর ভ্রাতৃত্বের আদর্শও উদ্ভাসিত হয় এই উৎসবে।

ধর্মপ্রাণ মুসল্লিরা কঠোর সিয়াম সাধনার মাধ্যমে পবিত্র রমজানের এক মাস অতিক্রম করে এখন ঈদ জামাতে নামাজ আদায়ের প্রস্তুতি গ্রহণ করছেন। রাজধানী ঢাকাসহ সারাদেশে সরকারী-বেসরকারী উদ্যোগে গ্রহণ করা সকল ঈদ জামাতের সব প্রস্তুতি ইতোমধ্যেই সম্পন্ন হয়েছে।

ঈদ উপলক্ষে মুসল্লিদের নিরাপত্তা এবং আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে রাজধানীসহ সারাদেশে বিশেষ নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।

গুলশান হত্যাযজ্ঞের পর নিরাপত্তার খাতিরে জাতীয় ঈদগাহ মাঠে অনুষ্ঠিতব্য ঈদের জামায়াতে অংশগ্রহণকারী মুসল্লিদের শুধু জায়নামাজ ছাড়া অন্য কিছু না আনার জন্য অনুরোধ জানানো হয়েছে।

পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, বিরোধীদলীয় নেতা রওশন এরশাদ ও বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া পৃথক বাণীতে দেশবাসীকে ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।