জানুয়ারি ২৪, ২০১৭

‘খুতবা নজরদারির নামে খতীবদের কণ্ঠ স্তব্ধ করার পায়তারা করা হচ্ছে’

ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম |

বাংলাদেশ খেলাফত মজলিসআইনশৃঙ্খলা সংক্রান্ত মন্ত্রিসভার বৈঠকে প্রতি শুক্রবার জুমার খুতবা ও বয়ান নজরদারি করার সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ জানিয়ে বাংলাদেশ খেলাফত মজলিসের নেতারা এক বিবৃতিতে বলেছেন, জুমার খুতবা ও বয়ান নজরদারির নামে খতীবদের কন্ঠ স্তব্ধ করার পায়তারা করছে সরকার।

সোমবার গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে যুগ্ম-মহাসচিব মাওলানা মামুনুল হক, মাওলানা জালালুদ্দীন আহমদ, কেন্দ্রীয় প্রচার প্রকাশনা ও অফিস সম্পাদক মাওলানা আজিজুর রহমান হেলাল এ প্রতিবাদ জানান।

তারা বলেন, মসজিদের ইমাম ও খতীবরা ইসলামের সঠিক বক্তব্য মানুষের সামনে তুলে ধরেন। সন্ত্রাস জঙ্গিবাদ, মাদকসহ সমাজের অনৈতিক কার্যক্রমের বিষয়ে দেশের মানুষকে সচেতন এবং এদের বিরুদ্ধে সামাজিক প্রতিরোধ গড়ে তুলতে মুসল্লিদেরকে উৎসাহিত করেন।

নেতারা আরও বলেন, দেশের ক্রান্তিকালে ইমাম খতীবরা অতীতেও ভূমিকা রেখেছে বর্তমানেও রাখছে। সুতরাং যে সমস্ত কারণে সন্ত্রাস জঙ্গিবাদ ও সামাজিক বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি হয়। সেগুলো চিহ্নিত করে সমাধানের চেষ্টা করুন। নেতৃবৃন্দ জঙ্গিবাদ, সন্ত্রাসসহ দেশ বিরোধী সকল ষড়যন্ত্রের মোকাবেলায় সকল রাজনৈতিক ও সামাজিক এবং বিভিন্ন পেশার লোকদের সমন্বয়ে ঐক্যবদ্ধ প্রতিরোধ গড়ে তুলতে সরকারকে উদ্যোগী হওয়ার আহবান জানান।