মার্চ ২৩, ২০১৭

লন্ডনে আজমতে কোরআন সম্মেলন অনুষ্ঠিত

ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম |

d9ab438d-4fe9-4a4e-941c-0fe04fd460d4গত ১০ জুলাই রবিবার পূর্ব লন্ডনের রয়েল রিজিনসী হলে আজমতে কোরআন সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। সম্মেলনে আন্তর্জাতিক কোরআন প্রতিযোগিতায় প্রথম স্থান অধিকারী হাফিজ নাজমুস সাকিবের কোরআন তিলাওয়াত উপস্থিত সকলকে মুগ্ধ করে। আল মাদিনা ইনটারন্যাশনাল ইনসিটটিউট এর উদ্যোগে আয়োজিত দুই অধিবেশনের এ সম্মেলনে প্রথম অধিবেশনে সভাপতিত্ব করেন হাফিজ ইউনুছ মাকনদা এবং দ্বিতীয় অধিবেশনে সভাপতিত্ব করেন মাওলানা মসতফা আহমদ। প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন ঢাকা থেকে আগত মাওলানা জুনায়েদ আল হাবীব। স্বাগত বক্তব্য রাখেন আল মাদিনা ইনটারন্যাশনাল ইনসিটটিউট এর প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান মাওলানা গোলাম কিবরিয়া। সার্বক্ষণিক উপস্থিত থেকে সম্মেলন তদারকি করেন সম্মানিত ট্রাস্টি আলহাজ্ব ফজলুর রহমান আলহাজ্ব মোহাম্মদ মিরাজ।

মাওলানা সৈয়দ নাঈম আহমদ ও মুফতি বুরহান উদ্দিন এর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত সম্মেলনে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, সাবেক এমপি মাওলানা শাহিনুর পাশা চৌধুরী, ঢাকার কোরআনের আলো ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান মাওলানা ক্বারী আবু ইউসুফ, বিশিষ্ট আলেম মাওলানা শায়েখ আছগর হোসেন, শায়খুল হাদীস মুফতি আবদুর রহমান, জামেয়া খাতামুন নাবীর প্রিন্সিপাল মুফতি সায়ফুল ইসলাম, বিশিষ্ট আলেম মাওলানা খায়রোল ইসলাম, মারকাজুল উলুম লন্ডনের প্রিন্সিপাল মাওলানা শুয়াইব আহমদ, বিশিষ্ট আলেম মাওলানা সৈয়দ মুশররফ আলী, টিভি ভাষ্যকার মুফতি আবদুল মুনতাকিম, মালানা ফয়েজ আহমদ,মাওলানা আবু তাহের লিডস, মুফতি মওসুফ আহমদ, মাওলানা হারিস উদ্দিন, মাওলানা মামনুন মহি উদ্দিন, মাওলানা মাহফুজ আহমদ, প্রমুখ।

সম্মেলনে মাদ্রাসাকে কোরআন ও কোরআনী শিক্ষা বিস্তারের রক্ষাকবচ উল্লেখ করে বক্তারা যেকোন মূল্যে আলেম ও হাফিজ তৈরীর এসব প্রতিষ্ঠানকে রক্ষার আহবান জনান।

সম্মেলনে মাওলানা জুনায়দ আল হাবীব বলেন, ত্রিশ লাখ শহীদের রক্তের বিনিময়ে অর্জিত বাংলাদেশের সঠিক মর্যাদা বৃদ্ধির লক্ষ্যে কাজ করেছেন আলিম ও হাফিজরা।

মাওলানা ক্বারী আবু ইউসুফ বলেন, কোরআন চর্চা করে যারা আজ বিশ্বের দরবারে বাংলাদেশের মাথা উঁচু করেছে বাংলাদেশে তাদের কোনো সরকারী মূল্যায়ন নেই।

মাওলানা গোলাম কিবরিয়া বলেন, আল্লাহ কর্তৃক কোরআন রক্ষার ওয়াদা আজ দেড় হাজার বছর পরও বিশ্বের সর্বত্র প্রতিফলিত হতে দেখা যাচ্ছে। আমরা যেন কোরআন শিক্ষা ব্যবস্থার খাদেম হয়ে আল্লাহর সৈন্যে পরিণত হই।

বিশিষ্ট আলেম মাওলানা আছগর হোসেন ঘরে ঘরে কোরআনের শিক্ষা পৌছে দেয়ার আহবান জানান।