জানুয়ারি ২০, ২০১৭

সন্ত্রাসী কর্মকান্ড দমনে জাতীয় ঐক্য গড়ে তুলতে হবে: ড. আহমদ আবদুল কাদের

ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম |

4b762d26-c72d-4174-beec-58c7007aa25aখেলাফত মজলিস মহাসচিব ড. আহমদ আবদুল কাদের বলেছেন, ইসলামে হত্যা, সন্ত্রাস, উগ্রবাদের কোন স্থান নেই। যারা মানুষ হত্যা করে তারা ইসলামের ক্ষতি করার হীন উদ্দ্যেশ্য নিয়ে এ অপকর্ম করছে। আধিপত্যবাদী, সা¤্রাজ্যবাদী ও ইহুদীবাদী ষড়যন্ত্রের ফসল হচ্ছে এসব সন্ত্রাসী তৎপরতা। সন্ত্রাসী কর্মকান্ড ও উগ্রবাদ দমনে জাতীয় ঐক্য গড়ে তুলতে হবে। উগ্রবাদ দমনে মসজিদ, মাদ্রাসা, জুম্মার খুৎবা নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা অমূলক ও অনভিপ্রেত। বরং ইসলামের শান্তি ও সাম্যের বাণী প্রচারের মুক্ত পরিবেশ নিশ্চিত করতে হবে। সমাজে বিরাজমান অসঙ্গতি, অপসংস্কৃতি, অবিচার, জুলুম, শোষন, বৈষম্য দূর করতে হবে। ধর্মীয় ও নৈতিক শিক্ষায় গুরুত্বারোপ করতে হবে। হত্যা, সন্ত্রাস, উগ্রবাদের বিরুদ্ধে রাজধানীতে খেলাফত মজলিস ঢাকা মহানগরী আয়োজিত মানববন্ধনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

আজ শুক্রবার সকাল সাড়ে ১০টায় জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে খেলাফত মজলিস ঢাকা মহানগরী সভাপতি শেখ গোলাম আসগরের সভাপতিত্বে ও মাওলানা আজিজুল হকের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত মাবনবন্ধে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন নায়েবে আমীর মাওলানা সৈয়দ মজিবুর রহমান ও সিনিয়র যুগ্মমহাসচিব মাওলানা মুহাম্মদ শফিক উদ্দিন। মহানগরী সাধারণ সম্পাদক মাওলানা আজিজুল হকের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সমাবেশে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় অফিস ও প্রচার সম্পাদক অধ্যাপক মুহাম্মদ আবদুল জলিল, মাওলানা তোফাজ্জল হোসেন, মহানগরীর সহ-সাধারণ সম্পাদক মোঃ জহিরুল ইসলাম, খন্দকার সাহাব উদ্দিন আহমদ, হুমাযুন কবির আজাদ, মাওলানা সাইফউদ্দিন আহমদ খন্দকার, আবদুর হাফিজ খসরু, আবুল হোসাইন, মোস্তাফিজুর রহমান ইরান, শ্রমিক নেতা নূর হোসেন, ছাত্র নেতা ইলিয়াস হোসাইন প্রমুখ।
নায়েবে আমীর মাওলানা সৈয়দ মজিবুর রহমান বলেন, পিসটিভির পরিচালক জাকির নায়েকের সকল বক্তব্যের সাথে আমরা একমত নই কিন্তু যে অযুহাতে পিসটিভি বন্ধ কওে দেয়া হয়েছে তা কোনভাবেই গ্রহনযোগ্য নয়।
সিনিয়র যুগ্মমহাসচিব মাওলানা মুহাম্মদ শফিক উদ্দিন বলেন, এদেশের মসজিদ, মাদ্রাসা, মিম্বর থেকে শান্তি ও সম্প্রতির বাণী প্রচার করা হয়। কিন্তু আজকে জুম্মার খুৎবা নিয়ন্ত্রণের মাধ্যমে ইসলামকে নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা চালানো হচ্ছে। ইসলামী ফাউন্ডেশনের বর্তমান কর্মকর্তাদের জুম্মার খুৎবা নির্দিষ্ট করে দেয়ার কোন অধিকার নেই।