তল্লাশির নামে শিক্ষার্থীদেরকে হয়রানির তীব্র নিন্দা ছাত্র জমিয়তের

ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম | নিজস্ব প্রতিনিধি


তল্লাশির নামে শিক্ষার্থীদেরকে হয়রানির তীব্র নিন্দা জানিয়ে ছাত্র জমিয়ত বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় সভাপতি এম. সাইফুর রহমান বলেছেন, সরকার মানুষের ভাষা বুঝতে ব্যর্থ হয়েছে। মানুষ নিরাপত্তা চায়। নিরাপদ জীবন চায়। নিরাপদ সড়ক চায়। কিন্তু সরকার এসব ক্ষেত্রে ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছে। উল্টো নিরাপদ সড়কের দাবিতে আন্দোলনকারী নিরীহ, নিরপরাধ শিক্ষার্থীদের উপর দলীয় সন্ত্রাস ও সরকারি বাহিনী দিয়ে যে নির্যাতন চালানো হয়েছে তা জাহিলিয়্যাতকেও হার মানিয়েছে। এখন আবার তল্লাশির নামে শিক্ষার্থীদেরকে হয়রানি করা হচ্ছে। আমরা এর তীব্র নিন্দা জানাই।

আজ সংগঠনের সম্পাদকমন্ডলীর বৈঠকে সভাপতির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। এসময় বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন, সহ সভাপতি এখলাছুর হমান,সাধারণ সম্পাদক হুযাইফা ইবনে ওমর, সহ সাধারণ সম্পাদক মাঈনুদ্দিন মানিক, সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদুল হক উমামা, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক যুবায়ের আহমদ,সহ সাংগঠনিক সম্পাদক রাজিবুল ইসলাম,মাদরাসা বিষয়ক সম্পাদক সাব্বির আহমদ, পাঠাগার সম্পাদক জোনায়েদ আহমদ, প্রচার সম্পাদক মাহফুজুর রহমান, প্রকাশনা সম্পাদক হাফিয ফুযায়েল আহমদ, সমাজসেবা সম্পাদক মাবরুরুল হক, কলেজ ভার্সিটি বিষয়ক সালমান মুস্তফা খান, দপ্তর সম্পাদক কাওসার আহমদ প্রমুখ।

সাইফুর রহমান বলেন, বর্তমানে আমাদের দেশ সবচেয়ে কঠিন সময় পার করছে। দেশে আইনের শাসন বলতে কিছু নেই। সর্বত্র দলীয়করণের চর্চা চলছে। প্রশাসনকে ব্যবহার করে জোরপূর্বকভাবে ক্ষমতায় থাকার জন্য সরকার গভীর ষড়যন্ত্রে লিপ্ত। দেশে গণতন্ত্র আজ হুমকির মুখে। হত্যা, গুম, খুন, অস্বাভাবিক রোড এক্সিডেন্ট নিত্য দিনের ঘটনা। দেশের জনগণ সর্বক্ষেত্রে অনিরাপদ। অজানা এক আতংকে বাস করছে মানুষ।

তিনি অত্যন্ত উদ্বেগের সঙ্গে বলেন, পিলখানা ট্রাজেডি, শাপলা চত্তরের গণহত্যা, বিরোধী দলীয় নেতা-কর্মীদের উপর নির্যাতন, হামলা-মামলা, ব্যাপক হারে গুম-খুন, কোটা সংস্কার ও নিরাপদ সড়কের দাবিতে আন্দোলনকারীদের উপর বর্বর নির্যাতন প্রমাণ করে সরকার জনগণের সরকার নয়। এই সরকার স্বৈরশাসকের ভূমিকায় অবতীর্ণ। নির্বাচনের সুষ্ঠু পরিবেশ তৈরি হলে সরকারের সকল অপকর্মের জবাব জনগণ ব্যালটের মাধ্যমে দিবে ইনশাল্লাহ।