কওমি সনদের স্বীকৃতির আইন অনুমোদন করায় প্রধানমন্ত্রীকে ইসলামী আন্দোলনের ধন্যবাদ

ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম | ডেস্ক রিপোর্ট


ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মহাসচিব অধ্যক্ষ মাওলানা ইউনুছ আহমাদ এক বিবৃতিতে কওমি সনদের স্বীকৃতি আইনের খসড়ার নীতিগত অনুমোদনের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের অধিকারের বিলম্বিত হলেও বাস্তবায়ন হওয়ায় প্রধানমন্ত্রীসহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের প্রতি ধন্যবাদ জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, সাম্প্রতিক মন্ত্রীসভায় “কওমি মাদরাসাসমূহের দাওরায়ে হাদিস (তাকমিল)-এর সনদকে মাস্টার্স ডিগ্রি (ইসলামিক স্টাডিজ ও আরবি) সমমান আইন, ২০১৮” শীর্ষক যে আইনের খসড়া অনুমোদন দেয়া হয়েছে, আমরা স্বাগত জানাই।

অধ্যক্ষ ইউনুছ বলেন, কওমি সনদের স্বীকৃতি দেশের কওমি ধারার বহুদিনের দাবি। কওমি ধারার অধ্যয়নরত শিক্ষার্থীদের সাংবিধানিক এই অধিকার আদায়ের জন্য দীর্ঘদিন আন্দোলন সংগ্রাম করেছে। বহু আন্দোলন, রাজনৈতিক প্রতিশ্রুতি ও ছলচাতুরীর পরে অবশেষে এই অনুমোদন আমরা আশাব্যাঞ্জক।

তিনি বলেন, আইনটি ব্যাপকভিত্তিক জনমতের ভিত্তিতে তৈরি হয়নি। আইনের অংশীদার সাধারণ শিক্ষার্থী-শিক্ষক এবং ইসলামী সংগঠনগুলোর সাথে প্রকৃত অর্থে মতবিনিময় করা হয়নি। সেই কারণে এই আইনে সাধারণ শিক্ষার্থী ও শিক্ষকদের স্বার্থ কতটা রক্ষা হবে সেটা নিয়ে আশংকা থেকেই যাচ্ছে। তবে এটা ধন্যবাদের বিষয় যে সরকার দেশের শীর্ষ উলামায়ে কেরামের সাথে মতবিনিময় করেছেন। তিনিা বলেন, কওমি সনদের স্বীকৃতি শিক্ষার্থীদের সাংবিধানিক অধিকার। বাংলাদেশের আইনের একটা বৈশিষ্ট্য হলো, আইনে কথা থাকে সুন্দর। কিন্তু আইনগত ফাঁকফোকরে আইনের বাস্তবায়ন নিয়ে বিলম্ব করা হয়। তবে আইনের ক্ষেত্রেও এমনটা হবে না বলেই আমরা আশা করছি।