মসজিদের খতীবগণ কোকিলপাখি নন যে কারো বুলি তারা আওড়াতে থাকবেন

ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম |

yahea_mahmudপবিত্র মসজিদে নববী, শোলাকিয়া ঈদ জামাত, হলি আর্টিজান, ফ্রান্স-সহ বিশ্বের বিভিন্ন স্থানে সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশ জমিয়তুল উলামা ঢাকা মহানগরীর সহসভাপতি ও রামপুরা বাইতুল মারুফ জামে মসজিদের খতীব আল্লামা ইয়াহইয়া মাহমূদ বলেছেন, মসজিদের খতীবগণ কোকিলপাখি নন যে কারো বুলি তারা প্রতি শুক্রবার আওড়াতে থাকবেন। অনেক যাচাই বাছাই করে খতীব সাহেবদের নিয়োগ দেওয়া হয়। তাদের উদ্দেশ্যে বিজ্ঞ আলেমদের পরামর্শ সাপেক্ষে কিছু থিম বলে দেওয়া যেতে পারে।

আজ ২৩ জুলাই সকাল ১১টায় বাংলাদেশ জমিয়তুল উলামা ঢাকা মহানগরীর উদ্যোগে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সাগর-রুনী মিলনায়তনে আল্লামা ইয়াহইয়া মাহমূদ এসব কথা বলেন।

ইফার মহাপরিচালক সামীম মোহাম্মদ আফজাল ইসলাম বিষয়ে জান্তা কেউ নন উল্লেখ করে ইয়াহইয়া মাহমূদ বলেন, সামীম মোহম্মদ আফজাল খুৎবা নিয়ন্ত্রণ ও খতিব কাউন্সিল গঠনের যে উদ্যোগ নিয়েছেন তা আলেমদের মধ্যে আবেদন তৈরি করতে চরমভাবে ব্যর্থ হবে। ইমাম সম্মেলনে ব্যালে ড্যান্স মঞ্চায়নকারী ইফা ডিজির উপর এ দেশের আলেমদের কোনো আস্থা নেই।

 

সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ মূলোৎপাটনের লক্ষ্যে বাংলাদেশ জমিয়তুল উলামার কর্মসূচি

১. স্কুল, কলেজ, মাদরাসা, মসজিদ ও বিশ্ব বিদ্যালয়গুলোতে সচেতনতামূলক কর্মসূচি গ্রহণ। ২. জঙ্গিবাদবিরোধী জাতীয় সম্মেলন আহ্বান। ৩. আলেম, বুদ্ধিজীবী ও সমমনা সংগঠনগুলোকে নিয়ে সমন্বিত কর্মসূচি গ্রহণ করা। ৪. ২৯ জুলাই ২০১৬ শুক্রবার জঙ্গিবাদ প্রতিরোধ দিবস উদযাপন। ৫. জেলায় জেলায় একলক্ষ আলেম, মুফতি ও ইমামগণের স্বাক্ষর সম্বলিত ফতোয়া ও জঙ্গিবাদবিরোধী স্মরকলিপি প্রদান করা।