অবিলম্বে গ্রেফতারকৃত ইমাম-খতিবদের মুক্তি দাবী খেলাফত মজলিসের

খেলাফত-মজলিস_11906খেলাফত মজলিসের কেন্দ্রীয় নির্বাহী পরিষদের বৈঠকে ইফা প্রেরিত জুম্মার খুৎবা অনুসরন না করায় দেশের কয়েকস্থানে ইমাম-খতিবদের গ্রেফতার ও নির্যাতনের তীব্র প্রতিবাদ জানিয়ে দেশের আলেম-ওলামা ইমাম-খতিবদের উপর জুলুম নির্যাতন বন্ধের আহ্বান জানান।

অবিলম্বে গ্রেফতারকৃত ইমাম-খতিবদের নি:শর্ত মুক্তি দাবী করে বলা হয়, হত্যা, সন্ত্রাস, উগ্রবাদ প্রতিরোধে আলেম-ওলামা, ইমাম-খতিবরা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে আসছেন। মসজিদের মিম্বর থেকে সবসময় সত্য, ন্যায়, নৈতিকতা, মানবিকতার বাণী প্রচার করা হয়। ইসলামের সাথে ঘৃনিত উগ্রবাদ তথা সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের কোন সম্পর্ক নেই। কিন্তু আজ সরকার চলমান ন্যাক্কারজনক সন্ত্রাসী হামলার ইস্যুকে কেন্দ্রকরে মসজিদ ও জুম্মার খুৎবার উপর নিয়ন্ত্রন আরোপের চেষ্টা করছে। এদেশের ধর্মপ্রাণ জনতা ধর্মের উপর কোনরূপ নিয়ন্ত্রন, নজরদারী কোনভাবেই মেনে নিবে না।

বৈঠকে দেশের উত্তরাঞ্চলে বিশেষকরে কুড়িগ্রাম, লালমনিরহাট, বগুড়ায় বন্যা পরিস্থিতির অবনতিতে উদ্বেগ প্রকাশ করা হয় এবং বন্যা দুর্গত এলাকার পানিবন্দী মানুষের প্রতি সহমর্মিতা প্রকাশ করে বন্যা দুর্গত এলাকায় পানিবন্দী মানুষের কাছে সরকারের পক্ষ থেকে প্রয়োজনীয় ত্রাণ সামগ্রী সরবারহের দাবী জানান। একই সাথে সমাজের বিত্তবাণ লোকদেরকে বন্যাদুর্গত মানুষের সাহায্যে এগিয়ে যাওয়ার আহ্বান জানান হয়।

গতকাল সংগঠনের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে নায়েবে আমীর মাওলানা যোবায়ের আহমদ চৌধুরীর সভাপতিত্বে মহাসচিব ড. আহমত আবদুল কাদেরের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত বৈঠকে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন নায়েবে আমীর মাওলানা সৈয়দ মজিবুর রহমানের, যুগ্মমহাসচিব এডভোকেট জাহাঙ্গীর হোসাইন, অধ্যাপক এমকে জামান, শেখ গোলাম আসগর, সাংগঠনিক সম্পাদক ড. মোস্তাফিজুর রহমান ফয়সল, প্রশিক্ষণ সম্পাদক- অধ্যাপক আবদুল হালিম, মাওলানা নোমান মাযহারী, অর্থ ও আইন বিষয়ক সম্পাদক- এডভোকেট মো: মিজানুর রহমান, অধ্যাপক কে এম আলম, অধ্যাপক মো: আবদুল জলিল, মাওলানা তোফাজ্জল হোসেন মিয়াজী, মাওলানা আজিজুল হক প্রমুখ

বৈঠকে আগামী ২৯ জুলাই ঢাকার শাহজাহানপুরস্থ মাহবুব আলী মিলনায়তনে অনুষ্ঠিতব্য কেন্দ্রীয় মজলিসে শূরার ষান্মাসিক শূরা অধিবেশনের প্রস্তুতি পর্যালোচনা করা হয় এবং সংশ্লিষ্ট ডেলিগেটদের যথাসময়ে উক্ত অধিবেশনে উপস্থিত হওয়ার আহ্বান জানান হয়।