প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ মানছেন না ইফা ডিজি: তরিকত ফেডারেশন

ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম |

তরিকত ফেডারেশনশুক্রবারের খুতবা সম্পর্কে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনা ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মহাপরিচালক সামীম মোহাম্মদ আফজাল মানছেন না বলে অভিযোগ করেছেন বাংলাদেশ তরিকত ফেডারেশনের চেয়ারম্যান সৈয়দ নজিবুল বসর মাইজভাণ্ডারী এমপি ও মহাসচিব এম এ আউয়াল এমপি।

শুক্রবার বিকেল গণমাধ্যমে প্রেরিত এক যৌথ বিবৃতিতে তারা অবিলম্বে খুতবা বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা বাস্তবায়নের জন্য ইফা ডিজিকে আহ্বান জানান।

যুক্ত বিবৃতিতে সৈয়দ নজিবুল বসর মাইজভাণ্ডারী এমপি ও মহাসচিব এম এ আউয়াল এমপি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সম্প্রতি পরিষ্কার করে বলেছেন, যে সরকার খুতবা নিয়ন্ত্রণের পরিকল্পনা সরকারের নেই। বরং জঙ্গিবাদ, সন্ত্রাস এবং উগ্রবাদ মোকাবিলায় মুসল্লিদের সচেতন করতে খুতবার আগে বয়ান দিতে। খুতবাপূর্ব বয়ানে যেন জঙ্গিবাদ সম্পর্কে বক্তব্য রাখা হয়। কিন্তু তৃতীয়বারের মতো প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা উপেক্ষা করেছেন সামীম মোহাম্মদ আফজাল। গত দুই সপ্তাহের মতো এই শুক্রবারের খুতবাও তিনি পড়ার জন্য খতিবদের কাছে পাঠিয়েছেন। এটা নিঃসন্দেহে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনার সঙ্গে দুর্ব্যবহার এবং বাড়াবাড়ি।

তরিকতের দুই শীর্ষনেতা দাবি করেন, তরিকত ফেডারেশন একাধিকবার আহ্বান করেছে খুতবা প্রণয়নে দেশের বিশিষ্ট আলেম ও ইমামদের পরামর্শ নিতে। কিন্তু বরাবরের মতো এবারও ইফা ডিজি কোনও কর্ণপাত করেননি। এতে করে দেশের ইমাম ও মুসল্লিদের মধ্যে ক্ষোভ বেড়েছে। আগের দিন পত্রিকার মাধ্যমে খুতবা মেইল দিয়ে প্রচার করলেই কাজটি সফল হয় না। মূলত ইফা ডিজি প্রচারণার আশ্রয় নিয়েছেন।

নেতারা বলেন, অনতিবিলম্বে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা অনুযায়ী খুতবা নয় বরং বয়ানে সহযোগিতা করতে জঙ্গিবাদ সম্পর্কে কোরআন শরীফ ও হাদিস শরীফের আলোকে বক্তব্য তৈরি করতে পারে ইসলামিক ফাউন্ডেশন। পাশাপাশি দেশের পীর মাশায়েখ, আউলিয়া, আলেম ও ইমাম-খতিবদের পরামর্শ নিয়ে একটি অভিন্ন খুতবা প্রণয়ন করা হোক। না হলে যেকোনও অস্থিরতার জন্য ইফা ডিজিকে দায়ী থাকতে হবে। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান প্রতিষ্ঠিত এই প্রতিষ্ঠানটির মৌলিকত্ব নষ্ট করার কোনও অধিকার নেই ইফা ডিজির।

তরিকত ফেডারেশন অনতিবিলম্বে খুতবা বিষয়ে সব বিভ্রান্তির অবসান ঘটাতে ইফা ডিজির প্রতি জোরালো আহ্বান জানায়।

হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে দলের দু’নেতা বলেন, আগামী দিনে এ ধরনের কর্মকাণ্ড প্রকাশ পেলে সারাদেশের মুসলমানদের নিয়ে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের ডিজির ব্যক্তিগত খায়েশ পূরণ বন্ধ করা হবে।