গণতন্ত্র নির্বাসিত; পুলিশ হতে ১০ লাখ, শিক্ষক হতে ৫ লাখ টাকা লাগে: এরশাদ

এইচ এম এরশাদজাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান এইচ এম এরশাদ বলেছেন, দেশে এখন পুলিশ হতে হলে ১০ লাখ ও স্কুলশিক্ষক হতে হলে ৫ লাখ টাকা লাগে। আমাদের সময় এমন ছিল না। দুর্নীতি ছিল না।

শনিবার বিকেলে মুন্সিগঞ্জ জেলা শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে জাতীয় পার্টির দ্বিবার্ষিক-বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এরশাদ এসব কথা বলেন।

নিজের আমলে যোগ্য ব্যক্তিদের চাকরি হয়েছে দাবি করে এরশাদ বলেন, ‘আমাদের সময় টাকা দিয়ে বিচার করিনি। যোগ্যতা দিয়ে বিচার করেছি। আমরা নয় বছর ক্ষমতায় ছিলাম। কোনো হত্যা করিনি, গুম করিনি।’

দেশের বর্তমান পরিস্থিতির কথা উল্লেখ করে এরশাদ দাবি করেন, ‘কথা বলা যায় না, লেখা যায় না। গণতন্ত্র আজ নির্বাসিত। আমরা কেবল মুখেই গণতন্ত্রের কথা বলি। কার্যকর কোনো তন্ত্র নেই। আমরা যখন ক্ষমতায় ছিলাম, বিচার বিভাগে কোনো হস্তক্ষেপ করিনি। আজ বিচার ব্যবস্থা কোথায় চলে গেছে! বিচার ব্যবস্থা নিয়ে প্রেস কনফারেন্স হয়। আইন শৃঙ্খলা কোথায় চলে গেছে! আমরা চাই, দেশে আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা হোক। মানুষ শান্তিতে থাকুক।’

জাতীয় পার্টির সাংগঠনিক অবস্থা সম্পর্কে বলতে গিয়ে এরশাদ বলেন, ‘আমার বয়স হয়ে গেছে। আমাদের সময় শেষ হয়ে আসছে। পার্টিতে নতুন লোক আসবে। পার্টি আরও শক্তিশালী হবে। যারা আগে ছিলেন সিনিয়র নেতা, তাঁরাও থাকবেন। তাঁরা পার্টির উপদেষ্টা হয়ে থাকবেন।’

জেলা জাতীয় পার্টির সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির আহ্বায়ক কুতুবউদ্দিন আহমদের সভাপতিত্বে আলোচনায় জাতীয় পার্টির কো-চেয়ারম্যান, সাবেক মন্ত্রী জিএম কাদের, মহাসচিব এ বি এম রুহুল আমিন হাওলাদার, প্রেসিডিয়াম সদস্য শেখ মো. সিরাজুল ইসলাম, যুগ্ম মহাসচিব আলমগীর শিকদার, লিয়াকত হোসেন, গোলাম মোহাম্মদ ও জেলা জাতীয় পার্টির সদস্যসচিব আবদুল বাতেন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।