ফিলিস্তিনি সেনাদের বাংলাদেশে সামরিক প্রশিক্ষণ দেয়ায় কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাস

মাহমুদ আব্বাসস্বাধীনতার সংগ্রামে লিপ্ত ফিলিস্তিনের সশস্ত্র বাহিনীর সদস্যদের বাংলাদেশে সামরিক প্রশিক্ষণের সুযোগ দেওয়ার জন্যে বাংলাদেশকে বিশেষভাবে ধন্যবাদ জানিয়েছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাস।

এ সময় অব্যাহত সমর্থনের জন্যে বাংলাদেশের জনগণ ও সরকারের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন ফিলিস্তিনের প্রেসিডেন্ট।

রবিবার রাতে ঢাকায় শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ এইচ মাহমুদ আলীর সাথে এক বৈঠকে তিনি এ কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন বলে জানিয়েছে বাংলাদেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

মন্ত্রণালয় জানিয়েছে ফিলিস্তিনের দুর্দিনে তাদের অকৃত্রিম বন্ধু হিসাবে আখ্যা দিয়ে এবং সর্বপ্রকার সহায়তার জন্য তিনি ফিলিস্তিন সরকার এবং জনগণের পক্ষ থেকে বাংলাদেশের প্রতি আন্তরিক ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন। জাপান যাওয়ার পথে ঢাকায় যাত্রাবিরতি করেন তিনি।

বিমানবন্দরে বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী তাকে স্বাগত জানান। পরে সেখানেই ফিলিস্তিনি প্রেসিডেন্টের সাথে বৈঠক করেন তিনি।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, ফিলিস্তিনি প্রেসিডেন্ট একই সাথে উল্লেখযোগ্য সংখ্যক ফিলিস্তিনি শিক্ষার্থীকে বাংলাদেশে পড়ার সুযোগ এবং সে দেশের সশস্ত্র বাহিনীর সদস্যদের বাংলাদেশে সামরিক প্রশিক্ষণের সুযোগ দেওয়ার জন্যে বিশেষভাবে ধন্যবাদ জানান।

বৈঠকে ফিলিস্তিনিদের ওপর ইসরায়েলিদের নৃশংসতার পাশাপাশি অনেক দিন ধরে অচলাবস্থায় থাকা শান্তি আলোচনার সর্বশেষ অবস্থা নিয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাহমুদ আলীকে অবহিত করেন তিনি। বৈঠকে স্বাধীন ভূমির জন্যে ফিলিস্তিনি মানুষের সংগ্রামের প্রতি বাংলাদেশের পক্ষ থেকে আবারো অব্যাহত সমর্থনের আশ্বাস দেওয়া হয়।

এ সময় পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাহমুদ আলী ফিলিস্তিনি নেতাকে বলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জাতিসংঘসহ সব আন্তর্জাতিক ফোরামেই ফিলিস্তিনের প্রতি তার সমর্থনের বিষয়টি তুলে ধরেছেন। মন্ত্রী এ সময় ফিলিস্তিনি সংকটের সমাধানের জন্যে কার্যকর উদ্যোগ নিতে বিশ্ব সম্প্রদায়ের প্রতি আহ্বান জানান।

তিনি এ সময় দ্বিপাক্ষিক সফরে এসে ফিলিস্তিনি জনগণের প্রতি বাংলাদেশের মানুষের সমর্থন প্রত্যক্ষ করার জন্যে মাহমুদ আব্বাস ও ফিলিস্তিনের পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে আমন্ত্রণ জানান।