মার্চ ২৮, ২০১৭

পুত্রবধূদের জন্য স্থায়ী কমিটির দুটি পদ খালি রাখেননি খালেদা জিয়া

ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম |

jobaedaবিএনপির স্থায়ী কমিটির দুটি পদ শূণ্য। ওই দুই পদে বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের স্ত্রী ডা: জোবায়দা রহমান ও আরাফাত রহমান কোকোর স্ত্রী শর্মিলা রহমানের জন্য খালি রাখা হয়েছে জল্পনা কল্পনা রাজনৈতিক অঙ্গনে শোনা গেলেও তা বাস্তব নয়। এই ধরনের কোন সিদ্ধান্ত নেননি বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া।

তিনি তার দুই ছেলের বউকে এখন রাজনীতিতে আনার কোন চিন্তাও করছেন না। সেখানে তাদেরকে পদে আনতে পদ খালি রাখবেন সেটাও ঠিক না। এই কথাগুলো জানিয়েছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির একজন গুরুত্বপূর্ণ সদস্য ও বিএনপির শীর্ষ নেতাদের একজন। তিনি বলেন, এইগুলো বানানো গল্প।

জোবায়দা রহমান ও শর্মিলা রহমান রাজনীতিতে আসছেন এমন খবর প্রকাশ করেছে বিভিন্ন গণমাধ্যম। এই ব্যাপারে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ও মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, বিএনপির রাজনীতিতে আপাতত তারা আসছেন না এটাই জানি। আর স্থায়ী কমিটির যে পদ খালি রাখা হয়েছে তা তাদের জন্য নয়। বরং খালি রাখা হয়েছে কেউ বাদ পড়েছেন কিনা তা দেখার জন্য। ম্যাডাম মনে করেছেন পুরো কমিটি গঠন করার পর যদি দেখা যায় যে এমন কেউ বাদ পড়ে গেছেন যাকে নীতি নির্ধারনী ফোরামে না আনলেই না। এই রকম নেতাদের কেউ বাদ পড়লে ওই নেতাদের সেখানে বসাবেন।

এই রকম নেতা কি বাদ পড়েছেন? এই প্রশ্নের উত্তরে বিএনটি মহাসচিব বলেন, হ্যা এই রকম বাদ পড়েছেন। তাদের মধ্যে দুইজনকে আনা হবে। দুই ছেলের বউয়ের জন্য পদ খালি রাখার ব্যাপারে জানতে চাইলে তিনি বলেন, এটা বলার জন্য বলা হতে পারে। দুই ছেলের বউ আছে বলেই কেউ কেউ মনগড়া কথা বলছেন। আসলে এটাগুলো হচ্ছে একেবারেই বৃথা চিন্তা। যার কোন মানে নেই।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তারেক রহমানের স্ত্রী ডা: জোবায়দা রহমানের প্রশংসা করেছেন। বলেছেন তিনি বিএনপির নেতৃত্বে আসলে ভাল হবে। এই ব্যাপারে প্রতিক্রিয়া জানতে চাইলে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, এটা প্রধানমন্ত্রীর অন্য কোন কৌশল হতে পারে। এই কারণেই তিনি বলে থাকতে পারেন। তিনিতো কোন উদ্দেশ্য ছাড়া কথা বলেন না। এটা আসলে তার বৃথা চিন্তা। কারণ এখন এই ধরনের চিন্তা করছেন না ম্যাডাম। সময় যখন হবে তখন কারো চিন্তা করতে হবে না ম্যাডাম নিজেই সিদ্ধান্ত নিতে পারবেন ।