মার্চ ২৯, ২০১৭

ঢাকা কারাগারের পুরনো ভবনে বিড়ালের কান্না

ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম |

nocreditঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারের বন্দীদের কেরানীগঞ্জের নতুন কারাগারে সরিয়ে নেয়ার পর বিপাকে পড়েছে একদল বিড়াল।
এসব বিড়াল দীর্ঘদিন ধরেই কারাগারেই ছিল, সেখানেই তাদের বেড়ে ওঠা।

বন্দীদের খাবারের উচ্ছিষ্ট খেয়ে যথেষ্ট হৃষ্টপুষ্টই ছিল তারা, চার দেয়ালের প্রকোষ্ঠে বেশ সুখেই দিন কাটছিলো তাদের।
একটি দুটি করে দিনে দিনে বিড়ালের সংখ্যাও একেবারে কম ছিলোনা।

খাবারের পাশাপাশি কেউ কেউ আবার বন্দীদের কাছে আদর ভালোবাসাও পেয়ে আসছিলো নিয়মিত।

আর এভাবেই নানা অপরাধে দীর্ঘকাল ধরে থাকা বন্দীদের অনেকের ঘনিষ্ঠজনেই পরিণত হয়েছিলো কোন কোন বিড়াল।
কিন্তু হঠাৎ করে তাদের স্বচ্ছন্দময় জীবনে ঘটে গেছে বিরাট ছন্দপতন।

আর এর কারণ হলো ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারই স্থানান্তর হয়ে গেছে কেরানীগঞ্জে।

160811084701
বুধবার কারাগারের ভেতর থেকে তোলা ছবি

গত ২৯ শে জুলাই বন্দীদের সরিয়ে নেয়া হয়েছে কেরানীগঞ্জের নতুন কারাগার ভবনগুলোতে।
আর এতে করে ছেদ পড়ে বিড়ালগুলোর আয়েশি জীবনে, শুরু হয় খাবার সংকট।

পরের কয়েকদিন খাবার না পেয়ে পুরনো কারাগার থেকে বেরিয়ে যেতে শুরু করে কিছু বিড়াল।
বুধবারও কিছু বিড়ালকে দেখা গেছে পুরনো কারাগারের মধ্যে।

সুনির্দিষ্ট কোন সংখ্যা কেউ জানাতে পারলেও কারা কর্মকর্তারা বলছেন বেশ কিছু বিড়াল অনেকদিন ধরেই বাস করছিলো নাজিমুদ্দিন রোডের ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারের ভেতরে।

তবে ডেপুটি জেলার মোহাম্মদ আশরাফুল ইসলাম বিবিসিকে বলছেন কারাগার পরিবর্তনের সময় তারা বিড়ালগুলোর কথা একেবারে ভুলেননি।
তিনি বলেন, “কিছু বিড়ালকে বের করে দিয়ে দেয়া হয়েছে যাতে করে এগুলো ভালো পরিবেশে থাকতে পারে। বাকীগুলোকেও বের করা হবে”।

তবে শুধুই বাইরে বের করে দেয়া হচ্ছে নাকি সুনির্দিষ্ট কোথাও দেয়া হচ্ছে সে সম্পর্কে কিছু জানাতে পারেননি মিস্টার ইসলাম।

বিবিসি বাংলা