জানুয়ারি ১৭, ২০১৭

মুসলিম হওয়ার কারণেই বঞ্চিত হচ্ছেন ব্রিটেনের নারীরা

ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম |

143917_179আধুনিক বিশ্বের গণতন্ত্রের সুতিকাগার বলে খ্যাত ব্রিটেনে সংখ্যালঘু নৃগোষ্ঠী ও মুসলিম নারীরা সবচেয়ে বেশি বঞ্চিত হচ্ছে। সম্প্রতি এমন চাঞ্চল্যকর তথ্য উঠে এসেছে ব্রিটিশ এমপিদের দ্যা উইমেন অ্যান্ড ইকুয়ালাইটিস কমিটির এক প্রতিবেদনে।

ব্রিটিশ এমপিদের ওই প্রতিবেদনের বরাত দিয়ে বিবিসির খবরে বলা হয়, মুসলিম নারীরাই অর্থনৈতিকভাবে সবচেয়ে বঞ্চিত জনগোষ্ঠী, এমনকি অন্য নারীদের তুলনায় তাদের বেকারত্বের হার তিনগুন বেশি।

এমপিদের দ্যা উইমেন অ্যান্ড ইকুয়ালাইটিস কমিটি তাদের এই প্রতিবেদনে বলছে মূলত তিনটি কারণেই তাদের এই হাল। আর এসব কারণগুলো হলো- তারা নারী, সংখ্যালঘু নৃগোষ্ঠী ও মুসলিম। কমিটি মনে করছে এ বৈষম্য দূর করতে মন্ত্রীদের পরিকল্পনা গ্রহণ করা উচিত বছর শেষ হওয়ার আগেই।

রিপোর্ট বলছে ধর্মের কারণেই মুসলিম নারীরা বেশি বঞ্চনার শিকার হচ্ছে। “মুসলিম নারীদের ওপর ইসলামোফোবিয়ার প্রভাবকে অবহেলা করা উচিত নয়”। রিপোর্ট অনুযায়ী একই ধরণের শিক্ষাগত যোগ্যতা ও ভাষাগত দক্ষতা থাকা সত্ত্বেও খ্রিস্টান নারীদের চেয়ে প্রায় ৭১ শতাংশ বেশি মুসলিম নারীই বেকার রয়েছে।

এমনকি বৈষম্যের শিকার হওয়ার ভয় ও কাজের পরিবেশের কারনেও অনেক মুসলিম নারী চাকুরীর আবেদন করেন না।

ম্যানচেস্টারের একজন ২১ বছর বয়সী মুসলিম নারী বলছেন তিনি দুটি ফোন ইন্টারভিউতে অংশ নিয়েছিলেন। “ফোনে তারা বলেছিলো আমিই যোগ্য পদটির জন্য। কিন্তু পরে যখন সামনা সামনি সাক্ষাতকার হলো যেখানে আমার মাথায় স্কার্ফ ছিলো তখনি তাদের সুর পাল্টে গেলো”।

সূত্র : বিবিসি