কুচক্রীদের দাঁতভাঙা জবাব দেবে ইনশাআল্লাহ : মুফতী ফয়জুল্লাহ

মুফতি ফয়জুল্লাহইসলামী ঐক্যজোটের মহাসচিব মুফতী ফয়জুল্লাহ বলেছেন, সন্ত্রাসী, দুর্বৃত্ত, বিপথগামী ও ইসলাম বিনাশীদের হাত থেকে দেশকে রক্ষায় আমরা বদ্ধপরিকর। দেশের উলামা মাশায়েখের দুর্বার সাহসী পদক্ষেপে এবং নিরস্ত্র জনতার প্রতিরোধের মুখে গুলি, বন্দুক বোমা ও অন্যান্য অস্ত্র অকার্যকর হয়ে পড়ছে।

আজ এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, যেকোনো সন্ত্রাসী হামলা, কোনো নিষ্ঠুরতা ঘটলে আমরা তখনই সেই সহিংসতা ও বর্বরতার নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই। আমদের বক্তব্য স্পষ্ট, ইসলামে সন্ত্রাসবাদের স্থান নেই। আলেম উলামা সন্ত্রাস নৈরাজ্যের বিরুদ্ধে, তাঁরা শান্তি-শৃঙ্খলা এবং সমৃদ্ধির পক্ষে। সরকারও বার বার বলছে, দেশের আলেম উলামা ও কওমী মাদ্রাসায় সন্ত্রাসী নেই এবং এখানে সন্ত্রাসী তৈরি হয় না। আমরা মনে করি এটাই সঠিক।

তিনি আরো বলেন, আমরা অত্যন্ত বেদনার সাথে লক্ষ্য করছি, দেশের সন্তানদের কুরআনী শিক্ষা বাঁধা গ্রস্থ করার জন্য সরকারের ভেতর ঘাপটি মেরে থাকা কিছু ইসলাম বিদ্বেষী নেতা কেরানীগঞ্জসহ দেশের বিভিন্নস্থানে নূরানী মক্তব, হাফেজিয়া ও কওমি মাদরাসা বন্ধের চক্রান্ত করছে। তারাই দীনি শিক্ষা কেন্দ্র কওমি মাদরাসা এবং নতুন নূরানী মক্তব স্থাপন ও পরিচালনাকে সরকারি নিবন্ধনের বাধ্যবাধকতার আওতায় আনার ষড়যন্ত্র করছে। বিভিন্ন এলাকায় কওমি মাদরাসার আলেম উলামা ও ছাত্রদের হয়রানীমূলক, মিথ্যা,ভিত্তিহীন উদ্দেশ্যপ্রণোদিত মামলায় জড়িয়ে গ্রেফতার করাচ্ছে।

মুফতী ফয়জুল্লাহ বলেন, দেশের আলেম উলামার আহ্বানে সাড়া দিয়ে সাধারণ জনগণ যেমনিভাবে প্রত্যেক সন্ত্রাসী চক্র,অন্যায় অবিচার, সন্ত্রাস,নৈরাজ্যের মেরুদ- চূর্ণ-বিচূর্ণ করে দেয় অনুরুপভাবে তাঁদের আহ্বানে সাড়া দিয়ে দীনি শিক্ষা কেন্দ্র কওমী মাদারাসা রক্ষার জন্য উদ্দীপ্ত জনগণ রাজপথে নেমে এসে ইসলাম বিনাশী কুচক্রীদের দাঁতভাঙা জবাব দেবে ইনশাআল্লাহ।