আল্লামা বাবুনগরীর সাথে জামায়াতে ইসলামীর কোন সম্পর্ক থাকতে পারে কি?

শাইখ হারুন আজিজী


তাহলে শুনুন, সেই অনেক দিন আগের কথা, মনে হয় ১৯৮৪ বা ৮৫ এর কথা হতে পারে। তখন আমরা জামিয়া ইসলামিয়া আজীজুল উলূম বাবুনগরের ছাত্র। আল্লামা বাবুনগরী সেই জামিয়ার একজন স্বনামধন্য বিজ্ঞ উস্তাদ। জামায়াতে ইসলামীর চট্রগ্রাম মহানগরীর একটি প্রতিনিধিদল জামিয়া পরিদর্শনে আসেন। তাদের মধ্যে মাওলানা শামসুদ্দিন ও মাওলানা আবুতাহের প্রমূখ ও ছিলেন। তারা মাদ্রাসা দেখে হুজুরের রুমে আসলেন। হুজুর তাদের মেহমানদারি করলেন। বিভিন্ন কথার প্রসংগে এক পর্যায়ে তারা হুজুরদের জামায়াতে ইসলামীর সাথে শামিল হওয়ার আহ্বান জানালেন। হুজুর তাদের কে স্পষ্ট ভাষায় উত্তর দিলেন- মাওলানা মাওদূদীর সাথে আমাদের কিছু আকীদাগত ও চিন্তা-চেতনাগত দন্ধ আছে। তাই আমরা আপনাদের সাথে এক হতে পারিনা। তবে আপনারা যদি আগামী কাল পত্রিকায় বিবৃতি দেন যে মাওদূদী সাহেবের ভূল গুলো মানেন না, তাহলে আমি প্রথম জামায়াতে যোগ দেব। তখন তারা বলল: আমরা এত বড় দায়িত্ব নিতে পারব না। তখন হুজুর বললেন, তাহলে আমাদের কেও ক্ষমা করবেন।
তারপর তাঁরা চট্রগ্রাম এর উদ্দেশ্যে রওয়ানা দিলেন।

এবার বলুন, হুজুরের সাথে জামায়াতের সম্পর্ক আছে বলে মিথ্যা খবর প্রচার কে ঘৃণীত ষঢ়যন্ত্র না বলে আর কি বলা যেতে পারে?

সোশ্যাল মিডিয়া থেকে