আল্লামা শফীর আখেরী মোনাজাতের মাধ্যমে শেষ হলো ইসলাহী ইজতেমা

নভেম্বর ১১, ২০১৯

ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম | জুনাইদ আহমাদ


দারুল উলূম হাটহাজারীর মহাপ‌রিচালক, হেফাজ‌তে ইসলাম বাংলা‌দেশ এর আমীর, আল্লামা শাহ আহমদ শফী এর ইজাযতপ্রাপ্ত খলীফা‌দের ইসলাহী ইজ‌তেমা আখেরী মোনাজা‌তের মাধ্য‌মে শেষ হ‌য়ে‌ছে।

১০ নভেম্বর রবিবার বাদ ফজর আল্লামা শাহ আহমদ শফীর আখেরী মোনাজাতের মাধ্যমে এ ইসলাহি ইজতেমা শেষ হয়।

৯ নভেম্বর শন‌িবার বাদ জোহর থে‌কে শুরু হ‌য়ে রব‌িবার বাদ ফজর পর্যন্ত চ‌লে খোলাফাদের এ ইসলাহী ইজ‌তেমা। এতে দে‌শের বি‌ভিন্ন প্রান্ত থে‌কে প্রায় দশ হাজার তরীকতপিপাসু আলেম ও সাধারণ জনগণ অংশ নেন।

মাওলানা আনাস মাদানীর সঞ্চালনায় ইসলাহি ইজতিমায় আত্মশুদ্ধিমূলক বয়ান করেন, আল্লামা শাহ আহমদ শফী, আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী, মাওলানা শেখ আহমদ, মুফতী নুরুল্লাহ বরিশাল, মুফতী মোবারকুল্লাহ বি-বাড়িয়া প্রমুখ।

খানকায়ে মাদানী সূত্রে জানা যায়,আল্লামা শফীর ইজাজত প্রাপ্ত খলীফা‌দের উপস্থিতি‌তে সকলের সম্মতিতে মানুষের মাঝে তাসাউফ ও আত্মশুদ্ধির উন্নতির জন্য “আঞ্জুমানে দাওয়াতে ইসলাহি” নামক তাসাউফভিত্তিক একটি সংগঠন আত্মপ্রকাশ করেছে।

এতে আল্লামা শাহ আহমদ শফীকে আমীর করে  মাওলানা আব্দুল কুদ্দুসকে (মুশীর‌ে আলা) উপদেষ্টা এবং মাওলানা আনাস মাদানীকে (আমী‌নে আম) মহাসচিব করে একটি কমিটি গঠন করা হয় এবং অতি শীঘ্রই এক‌টি মজলি‌সে শুরা গঠন করা হবে ব‌লে সং‌শ্ল‌িষ্ট সূত্র নি‌শ্চিত ক‌রে‌ছে।

আঞ্জুমানে দাওয়া‌তে ইসলাহীর মহাস‌চিব মাওলানা আনাস মাদানী জানান, দেশব্যাপী শিরক বিদআত কুসংস্কার দূরীকরণ, পীর মুরী‌দির নামে ভণ্ড পীর‌দের ইসলাম‌বির‌োধী কর্মকাণ্ড ব‌ন্ধ এবং তাসাওউফ ভি‌ত্তিক সমাজ গঠ‌নে আঞ্জুমানে দাওয়া‌তে ইসলাহী কাজ ক‌র‌বে।

ইসলাহী ইজ‌তেমা শেষে খানকায়ে মাদানীতে এ বিষয়ে এক জরুরি বৈঠক অনুষ্ঠিত হয় এবং এতে ৭ বিভাগের প্রতিনিধি খলীফাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন । এ‌তে ১১ সদস্যবিশিষ্ট একটি আহ্বায়ক কমিটি গঠন করা হয় এবং অতি শীঘ্রই তারা বিভাগীয় পর্যায়ে কমিটি গঠন করবে এবং বিভাগের দায়িত্বশীলগণ জেলা-উপজেলা পর্যায়ে কমিটি গঠন করবে। এবং ক‌মি‌টির মাধ্যমে জেলা‌ভি‌ত্তিক ইসলাহী মাহফিল অনুষ্ঠিত হবে।