ইনসাফ গত অর্ধযুগ ধরে সন্তোষজনক ভূমিকা পালন করতে সমর্থ হয়েছে

আহমদুল হক | উপদেষ্টা সম্পাদক: আহমদুল হক


অর্ধযুগ পেরিয়ে সত্যের সন্ধানে সপ্তম বছরে পা দিল আমাদের সবার প্রিয় ইনসাফ। গণমাধ্যমের কাজই হল সত্য অনুসন্ধান করা। একটি সমাজ বা রাষ্ট্রের রাজনৈতিক ও অর্থনৈতিক দিকনির্দেশনা আমরা খুঁজে পাই গণমাধ্যমে। সেই সত্য যদি নেতিবাচক হয় তাহলে তা তুলে ধরা হয় পরিশোধনের লক্ষ্যে; আর তা যদি হয় ইতিবাচক তাহলে তা তুলে ধরা হয় অনুপ্রেরণা ও উৎসাহ জোগাতে।

কিন্তু বলা যতটা সহজ বাস্তব ততটাই বন্ধুর। সে সত্য তুলে ধরার ক্ষেত্রে নানারকম বাধা-বিপত্তি আসে। সবাই তা সামলে উঠতে পারে না; সাহসী, নির্মোহ এবং সত্যের প্রতি নিষ্ঠাবান হতে হয়।

সেদিক বিবেচনায় ইনসাফ গত অর্ধযুগ ধরে সন্তোষজনক ভূমিকা পালন করতে সমর্থ হয়েছে- এ কথা বলতে কোনো দ্বিধা নেই; ইনসাফ সে কৃতিত্বের দাবি রাখে। তারপরও ‘বর্ষপূর্তি’ মানেই এক ধরনের হালখাতা। এক বছর ধরে আমি যা চেয়েছি তার কতটুকু করতে পেরেছি, কেনই বা বাকিটুকু করতে পারিনি তার একটা স্বচ্ছ ব্যাখ্যা খোঁজার চেষ্টা করা উচিত এই দিনে। তেমনটি হলে ভবিষ্যৎ পথচলা আরও বেশি সফল ও সার্থক হবে। ইনসাফ সে রকমটি করতে পারবে- এ বিশ্বাস আমাদের আছে। বর্ষপূর্তিতে ইনসাফের সম্পাদক পরম প্রিয় জনাব মাহফুজ খন্দকার ভাই সহ সংশ্লিষ্ট সবাইকে এবং সম্মানিত পাঠকদের প্রতি রইল নিরন্তর শুভ কামনা। ইনসাফ পথচলা নিষ্কণ্টক হোক।

Previous post ইনসাফ ইসলাম ও স্বাধীনতার প্রতীক
Next post ইনসাফ আমাদের মাঝে বেঁচে থাকুক হাজার বছর