Breaking News

ভারতের ভূখণ্ডে অব্যাহত আগ্রাসন চালাচ্ছে চীন; দুশ্চিন্তা বাড়ছে মোদি সরকারের

লাদাখ নিয়ে সামরিক ও কূটনৈতিক স্তরে আলোচনা চললেও আগ্রাসন থামছে না চীনের। এবার ভারতের দুশ্চিন্তা বাড়িয়ে উপগ্রহ থেকে তোলা চিত্রে সাফ দেখা গিয়েছে লাদাখে প্যাংগং লেকের ধারে বিশালাকার চীনা লিপি ও মানচিত্র এঁকেছে চীনের পিপল‌স লিবারেশন আর্মি (পিএলএ)।

উপগ্রহ চিত্রে দেখা যাচ্ছে, প্যাংগংয়ের ফিঙ্গার ৪ এবং ফিঙ্গার ৫ এর মাঝে মান্দারিন লিপি ও চীনের মানচিত্র আঁকা রয়েছে। ওই চিত্রের দৈর্ঘ্য প্রায় ৮১ মিটার ও প্রস্থ ২৫ মিটার। ফলে তা স্যাটেলাইট থেকে স্পষ্ট দেখা গিয়েছে। শুধু তাই নয়, ওই দুই ফিঙ্গার পয়েন্টের মাঝে প্রচুর অস্থায়ী ছাউনি তৈরি করে ফেলেছে চীনা বাহিনী। মজুত করেছে অস্ত্রশস্ত্রও।

উল্লেখ্য, প্যাংগং লেক বরাবর ফিঙ্গার ১ থেকে ফিঙ্গার ৮ পর্যন্ত বরাবর টহল দিয়ে এসেছে ভারতীয় সেনারা। তবে চীনের দাবি, ফিঙ্গার ৮ থেকে ফিঙ্গার ৪ পর্যন্ত তাদের এলাকা। ফলে সংঘাত বাড়ছে দুই বাহিনীর মধ্যে। গত মে মাসে ওই এলাকায় আচমকাই ভারতীয় সেনাদের উপর লাঠি ও পাথর নিয়ে হামলা চালিয়েছিল চীনা বাহিনী। ওই ঘটনার পর থেকেই প্রচুর সেনা মোতায়েন করেছে লালফৌজ। শুধু তাই নয়, ফিঙ্গার ৪ থেকে আর ভারতীয় সেনাদের টহল দিতে দিচ্ছে না চীনারা। বর্তমানে ওই ফিঙ্গার ৪-ই কার্যত সীমান্ত হয়ে দাঁড়িয়েছে। আরও তাৎপর্যপূর্ণ যে, ফিঙ্গার ৪ পর্যন্ত এসে নির্মাণ কাজও শুরু করেছে চীনের পিপল‌স লিবারেশন আর্মি (পিএলএ)। তবে ফিঙ্গার ১ এবং ফিঙ্গার ২ পর্যন্ত চিনা বাহিনীর অগ্রসর হওয়ার কোনও প্রমাণ মেলেনি।


এদিকে, পূর্ব লাদাখের গালওয়ান উপত্যকায় সীমান্ত বিবাদ ঘিরে উত্তেজনা কমাতে আজ মঙ্গলবারই কোর কমান্ডার পর্যায়ের বৈঠকে বসেছে ভারত-চীন। এদিন ভারতের দিকে চুশুল বর্ডার পয়েন্টে বৈঠকে বসেছেন ভারতের XIV Corp কমান্ডার লেফটেন্যান্ট জেনারেল হরিন্দর সিং ও চিনা ফৌজের জিনজিয়াং মিলিটারি রিজিয়নের কমান্ডার মেজর জেনারেল লিউ লিন। সব মিলিয়ে কূটনৈতিক ও সামরিক স্তরে সীমান্তে উত্তেজনা প্রশমনের সমস্ত চেষ্টা চলছে ভারতের পক্ষ থেকে। তবে চীনের মনোভাবের কারণে সেই শান্তিপ্রক্রিয়া ভেস্তে যেতে পারে বলেই মনে করছেন আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিশ্লেষকরা।

সূত্র: সংবাদ প্রতিদিন

About |

Check Also

ফাউসির উপদেশ শুনলে আমেরিকায় করোনায় মারা যেত ৫ লাখ: ট্রাম্প

হোয়াইট হাউজে করোনা ভাইরাস বিষয়ক টাস্কফোর্সের সদস্য ও আমেরিকার সংক্রামক ব্যাধি বিষয়ক শীর্ষ বিশেষজ্ঞ ড. …