আসাদ বাহিনীর হামলায় বিপর্যস্ত সিরীয় শিশুদের সাহায্যে এগিয়ে আসার আহ্বান

সিরিয়ার গৃহযুদ্ধ দশম বছরে পা রাখতে যাচ্ছে৷ এই যুদ্ধের সবচেয়ে বড় বলি দেশটির শিশুরা৷

শুক্রবার (২৭ মার্চ) জাতিসংঘের শিশু বিষয়ক সংস্থা ইউনিসেফ আনুষ্ঠানিকভাবে বিশ্বকে সিরীয় শিশুদের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান জানিয়েছে।

ইউনিসেফ জানায়, ‘যুদ্ধে প্রতি ১০ ঘণ্টায় একটি সিরীয় শিশু মারা যায়।’ মার্চে প্রকাশিত ইউনিসেফের তথ্যানুযায়ী, ২০১৪ সাল থেকে ২০১৯ সালের শেষ পর্যন্ত দেশটিতে পাঁচ হাজার ৪২৭ শিশু যুদ্ধের বলি হয়েছে৷

এছাড়া সিরিয়ায় প্রায় ৫০ লাখ শিশু এবং দেশের বাইরে বিভিন্ন শরণার্থী ক্যাম্পে আরো প্রায় ২৫ লাখ সিরীয় শিশু চরম মানবেতর জীবন যাপন করছে বলে ওই প্রতিবেদনে জানানো হয়৷

ইউনিসেফ থেকে টুইটারে এক ভিডিও পোস্টে বলা হয়, সিরিয়ায় নয় বছরের কম বয়সের শিশুরা যুদ্ধ ছাড়া আর কিছুই দেখেনি৷

জার্মানিতে ইউনিসেফ কার্যালয়ের প্রধান বলেন, ‘‘মানবিক সাহায্য হয়তো দেশটির যুদ্ধ শেষ করতে পারবে না৷ তবে এটা যুদ্ধে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্তদের কষ্ট কিছুটা হলেও লাঘব করতে সক্ষম হবে৷”

সুন্নি মুসলমান গণহত্যার খলনায়ক বাশার আল আসাদ ও তার মিত্র বাহিনীর বোমা হামলায় সিরিয়ায় যুদ্ধবিধ্বস্ত মানুষদের যে পরিমাণ সাহায্য প্রয়োজন তার মাত্র ৪০ শতাংশ তারা পায়৷ এ কারণে সাহায্য বাড়াতে বিশ্ববাসীকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়েছে ইউনিসেফ৷

সূত্র: ডয়চে ভেলে