ভারতে হিন্দুদের শ্মশানে পোড়ানো হলো করোনায় মৃত মুসলমানকে

ভারতের পশ্চিমাঞ্চলীয় মহারাষ্ট্র প্রদেশের রাজধানী মুম্বাইয়ে করোনায় আক্রান্ত এক মুসলিম বৃদ্ধের মরদেহ দাফনে স্থানীয় মুসলিম সমাজপতিরা বাধা দিয়েছেন। এ ঘটনার পর ওই এলাকার হিন্দুদের সহায়তায় ৬৫ বছর বয়সী ওই বৃদ্ধের মরদেহ শ্মশানে পোড়ানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন তার পরিবারের সদস্যরা।

বুধবার (১ এপ্রিল) মুম্বাইয়ের মালাদ মালওয়ানি এলাকায় এ ঘটনা ঘটেছে।

এনডিটিভি বলছে, মৃত ব্যক্তি মালওয়ানি কালেক্টর কম্পাউন্ডের বাসিন্দা ছিলেন। বুধবার ভোরের দিকে জোগেশ্বরীর একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি।

মৃত ব্যক্তির পরিবারের এক সদস্য বলেন, মরদেহ মালাদ মালওয়ানি কবরস্থানে নেয়া হলে সেখানে দাফনে বাধা দেয় ওই কবরস্থানের ট্রাস্টিরা।

তিনি বলেন, স্থানীয় প্রশাসন মৃত ব্যক্তিকে ভোর ৪টার দিকে মালওয়ানি কবরস্থানে দাফনের অনুমতি দিলেও ট্রাস্টি বোর্ডের সদস্যরা তাতে রাজি হননি। পুলিশ ও স্থানীয় রাজনীতিকরা ট্রাস্টি বোর্ডের সদস্যদের সঙ্গে আলোচনা করে দাফনের অনুমতি দেওয়ার অনুরোধ জানালেও তাতে সাড়া দেওয়া হয়নি।

মৃত ব্যক্তির ছেলে বলেন, আমার বাবাকে হাসপাতালে মৃত ঘোষণার পর কেউই সহায়তার জন্য এগিয়ে আসেনি। এমনকি আমি হাসপাতালের বাইরে বাবার মরদেহ নিয়ে তিন ঘণ্টারও বেশি সময় ধরে বসেছিলাম।

তিনি বলেন, আমরা তাকে মালাদ মালওয়ানি কবরস্থানে দাফন করতে চেয়েছিলাম। কিন্তু আমরা যখন সেখানে পৌঁছাই তখন ট্রাস্টিরা করোনা রোগী হওয়ার কারণে বাবাকে দাফন করতে অস্বীকৃতি জানায়।