ভারতীয় বিএসএফের গুলিতে নিহত জয়নালের লাশ গ্রহণ করেনি বিজিবি

ঠাকুরগাঁও সীমান্তে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর (বিএসএফ) গুলিতে নিহত জয়নাল আবেদিনের (৩৫) লাশ গ্রহণ করেনি বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)।

রবিবার (৫ এপ্রিল) বিএসএফ লাশ ফেরত নিতে বিজিবিকে চিঠি দেয়। কিন্তু বিজিবি এতে সাড়া দেয়নি।

গত ২ এপ্রিল ভোরে বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার চোষপাড়া সীমান্তের এস ৩৭৯/১ এস নম্বর মেইন পিলার এলাকায় জয়নাল আবেদিনকে ভারতীয় চাকলাগড় সীমান্ত ফাঁড়ির বিএসএফ গুলি করে হত্যা করে।

হত্যার শিকার জয়নাল অবেদিন ঠাকুরগাঁওয়ের রাণীশংকৈল উপজেলার বাচোর ইউনিয়নের ভাংবাড়ি গ্রামের মফিজউদ্দীনের ছেলে। তিনি কাজের সন্ধানে ভারতে গিয়ে পশ্চিম দিনাজুপর জেলার পানজিপাড়া গ্রামের ভারতীয় এক নারীকে বিয়ে করেন। এরপর জয়নাল অবৈধভাবে ভারতে যাতায়াত করতেন।

এ ব্যাপারে ঠাকুরগাঁও ৫০ বিজিবির অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল শহীদুল ইসলাম জানান, সীমান্তে নিহত ব্যক্তি দীর্ঘদিন যাবৎ দেশে থাকেন না। তাকে হত্যার পর বিএসএফ সদস্যরা লাশ নিয়ে যায়। তার দেহ তল্লাশি করে ভারতের রেশন কার্ড ও আধার কার্ড পায় তারা। তারপর বিএসএফ তার লাশ ফেরত দিতে চাইলে আমরা তা গ্রহণ করিনি।

‘যেহেতু জয়নাল কাগজপত্রে এখন ভারতের নাগরিক তাই আমরা তার মৃতদেহ গ্রহণ করতে পারি না,’ বিজিবির কর্মকর্তা যোগ করেন।

সূত্র: ইউএনবি