নতুন সড়ক পরিবহন আইন; গাড়ির কাগজপত্র তৈরি-নবায়নে বিআরটিএ কার্যালয়ে বেড়েছে ভিড়

নভেম্বর ৪, ২০১৯ নিজস্ব প্রতিনিধি

নতুন সড়ক পরিবহন আইন-২০১৮ কার্যকরের পর গাড়ির কাগজপত্র নবায়ন ও নতুন করে কাগজ করতে ভিড় বেড়েছে বাংলাদেশ রোড ট্রান্সপোর্ট অথরিটিতে (বিআরটিএ)। গাড়ির রেজিস্ট্রেশন, ফিটনেস, লাইসেন্স কিংবা নবায়নসহ গাড়ির সব কাজের জন্যই উপচেপড়া ভিড়ি অফিস পাড়ায়। তবে গ্রাহকপর্যায়ে বরাবরের মত ছিলো নানা অভিযোগ।

সড়ক পরিবহন আইন-২০১৮ কার্যকর হওয়ার পর থেকে সপ্তাহের দ্বিতীয় দিনে স্বাভাবিকের তুলনায় বিআরটিএ এর রাজধানীর মিরপুর শাখায় ভিড় ছিলো অনেক বেশি।

বিআরটিএতে আসা সেবাভোগীরা জানান, আমরা যেন সড়ক পরিবহন আইন মেনে সড়কে গাড়ি চালাতে পারি সেজন্য এখানে আসা। নাম না প্রকাশ করার শর্তে এক কর্মকর্তা বলেন, এখানে সবাই গাড়ির কাগজপত্র দেখাতে এসেছেন। জরিমানা হলে টাকা দিতে হবে, এ ভয়ে গাড়ির কাগজপত্র ঠিক করতে এসেছেন।

অনেকে বলেন, নতুন আইন যে করেছে তার সঙ্গে মাঠপর্যায়ে কাজের কোনো মিল নেই। সমন্বয়হীনতার অভিযোগ করেন অনেকে।

দ্রুত সমস্যার সমাধানের আশ্বাস দিয়ে বিআরটিএ কর্তৃপক্ষ বলছে, যেকোনো অভিযোগ আমলে নিয়েই গ্রাহক হয়রানি দূর করতে কাজ করছেন তারা।

বিআরটিএ এর সহকারী পরিচালক শফিকুল আলম সরকার বলেন, এ আইনে যেহেতু জরিমানার বিধানটা বেশি আছে তাই চাপটা বেড়েছে। গ্রাহকের চাপ বাড়ায় অফিসের অনানুষ্ঠানিকভাবে সময়সূচি পরিবর্তনের পাশাপাশি, ছুটির দিনও কাজ করার প্রত্যয় ব্যক্ত করে বিআরটিএ কর্তৃপক্ষ।