ইসলামে সন্ত্রাস হারাম, জিহাদ ফরজ: আল্লামা জুনাইদ বাবুনগরী

March 7, 2016

ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম | নিজস্ব প্রতিনিধি


হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের মহাসচিব আল্লামা হাফেজ জুনাইদ বাবুনগরী বলেছেন, ইসলামে সন্ত্রাস হারাম, জিহাদ ফরজ। সন্ত্রাস বন্ধ ও নির্মূলে মহান আল্লাহপ্রদত্ত চূড়ান্ত ব্যবস্থার নাম জিহাদ। সন্ত্রাসকে আল্লাহ পছন্দ করেন না। যারা সন্ত্রাস করে তারা প্রকৃত মুসলমান হতে পারে না।

তিনি আজ ফটিকছড়ির কাজিরহাট জামীয়া ইমদাদুল উলুম মাদরাসার দুদিনব্যাপী বার্ষিক ইসলামি মহাসম্মেলনের সমাপনী দিবসে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন।

আল্লামা বাবুনগরী বলেন, পৃথিবীতে যারা জঙ্গিবাদ, নৈরাজ্য ও সন্ত্রাস সৃষ্টি করে তারা আন্তর্জাতিক সা¤্রাজ্যবাদী সন্ত্রাসী গোষ্ঠী ইয়াহুদি-খ্রিস্টানচক্রের এজেন্ট। মুসলমানদের যারা সন্ত্রাসী হিসেবে চিহ্নিত করার জন্য উঠেপড়ে লেগেছে তারাই দুনিয়াজুড়ে সন্ত্রাসবাদ ছড়িয়ে দিচ্ছে। তিনি বলেন, যারা জিহাদকে সন্ত্রাস আখ্যা দিয়ে মানুষকে আতঙ্কিত করে, মুসলমানদের বিরুদ্ধে অপবাদ রটায় তারাই বিশ্বের সন্ত্রাস ও সন্ত্রাসবাদীদের আশ্রয় ও প্রশ্রয় দিয়ে বস্তুত ইসলাম নির্মূলের এজেন্ডা বাস্তবায়ন করতে চায়।

তিনি আরও বলেন, কওমী মাদরাসায় কুরআন-হাদিসের প্রকৃত শিক্ষা দেয়া হয়। আদর্শ, নৈতিকসম্পন্ন ও দেশপ্রেমিক সুনাগরিক তৈরি করা হয়। সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদের সঙ্গে কওমী মাদরাসার কোনো ধরনের সম্পর্ক নেই। প্রকৃত সন্ত্রাসীরা বস্তুবাদী, ধর্মহীন ও ভোগবাদী শিক্ষায় শিক্ষিত। বাংলাদেশে সন্ত্রাস ও দুর্নীতির সাথে জড়িতরা কেউ মাদরাসা শিক্ষিত নয়। কাজেই মাদরাসা শিক্ষার বিরুদ্ধে বিষোদগার করে তারা কোনো বিদেশী সন্ত্রাসী গোষ্ঠীর এজেন্ট হিসেবে ধর্মপ্রাণ মানুষকে উস্কানি দিয়ে দেশের শান্তি-শৃঙ্খলা বিনষ্ট করার ষড়যন্ত্র করে যাচ্ছে। এদের বিষদাঁত ভেঙে দেয়ার জন্য সর্বস্তরের মুসলমানরা প্রস্তুত রয়েছে।

আল্লামা জুনাইদ বাবুনগরী বলেন, হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ নামের চরম সাম্প্রদায়িক সংগঠনটি জন্মলগ্ন থেকে বিভিন্ন সময় সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির নষ্টের উস্কানিয়ে দিয়ে আসছে। সম্প্রতি বাংলাদেশ গরু জবাই নিষিদ্ধের দাবি জানিয়ে তারা ঔদ্ধত্বের সীমা ছাড়িয়েছে। আমরা সংশ্লিষ্ট সকলকে অনুরোধ করবো দেশের শান্তি-শৃঙ্খলা ভেঙে পড়ে এমন উস্কানিমূলক কর্মকা- থেকে বিরত থাকুন; অন্যথায় দেশের শান্তি বজায় রাখার স্বার্থে এসব উস্কানিদাতাদের বিরুদ্ধে সর্বত্র প্রতিরোধ গড়ে তুলতে ধর্মপ্রাণ তাওহিদী জনতা বাধ্য হবে।

মাদরাসার মহাপরিচালক মাওলানা জালাল আহমদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মহাসম্মেলনে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা সলিমুল্লাহ, কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা আজিজুল হক ইসলামাবাদী, হাটহাজারী মাদরাসার মুহাদ্দিস মাওলানা আশরাফ আলী নিজামপুরী, হাটহাজারী উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান, মাওলানা নাছির উদ্দিন মুনির, মাওলানা মোস্তফা নূরী, ইয়াহইয়াউস সুন্নাহ ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান, শায়খ হোসাইন মুহাম্মদ শাহজাহান, মাদরাসার মুহতামিম মাওলানা জুনাইদ বিন জালাল, মাদরাসার শিক্ষক মাওলানা এরশাদুল্লাহ, মাওলানা আবু তালেব, মাওলানা শফিউল আলম প্রমুখ।