করোনার প্রাদুর্ভাবে বন্ধ থাকা ইস্তাম্বুলের মসজিদে আদুরে বিড়ালছানার জন্ম

ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম | নাহিয়ান হাসান


করোনা প্রাদুর্ভাব থেকে নিরাপদ থাকার পদক্ষেপ স্বরূপ তুরস্ক সরকার সারা দেশে সাময়িকভাবে মসজিদ বন্ধ রেখেছে, যা ধর্মপ্রাণ মুসলমানদের জন্য হতাশাজনকতবে ইস্তাম্বুলের ফাতিহ জেলার একটি বিড়ালের জন্য তা হতাশাজনক নয় কেনোনা এখন সেখানকার খালি মসজিদের জায়গাটিই তার জন্য হয়ে উঠেছে তার বিড়ালছানাগুলিকে জন্ম দেওয়ার জন্য উপযুক্ত স্থান।

মসজিদের ইমাম সাহেব আরাকিয়েসি আহেমেত জেলেবী বলেছেন যে শুক্রবার যখন তিনি আজান দেওয়ার জন্য মসজিদে প্রবেশ করেছিলেন তখন নিকটবর্তী স্থান থেকে আসা ‘মিউ’ শব্দ শুনে কোনো সাহায্য করতে পারেননি। বাইরে থেকে আওয়াজ আসছে ধারণা করে তিনি মসজিদে নিজের দায়িত্ব পালন করে বাইরে বেরোনোর ​​সময় মিম্বারের নিচে আশ্রয় নেওয়া এক মা এবং তার চার বিড়ালছানার সাথে আলতো করে হোঁচট খেলেন।

তিনি তাড়াতাড়ি নিকটস্থ দোকানে গিয়ে ক্ষুধার্ত বিড়াল পরিবারটির জন্য দুধ এবং খাবার কিনে এনেছিলেন। এবং সারা দেশের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহারকারীদের সাথে আনন্দ ভাগাভাগি করে নেওয়ার সুযোগ হাতছাড়া না করতে তা সরাসরি রেকর্ড করলেন। ভিডিও ফুটেজে দেখা যায় যে, বিড়ালছানাগুলি কার্পেটে খেলছে, গড়াগড়ি করছে এবং অবশেষে খাওয়ানোর জন্য তাদের মায়ের কাছে ফিরে যাওয়ার আগে একে অপরের উপরে পরে যাচ্ছে।

তবে মসজিদের পবিত্রতা ও পরিচ্ছন্নতার কথা বিবেচনা করে অনিচ্ছা সত্ত্বেও ইমাম সাহেব বিড়ালগুলিকে মসজিদ থেকে সরিয়ে ফেলেছিলেন এবং তাদেরকে মসজিদের একদম পাশেই একটি জায়গায় আশ্রয়স্থান করে দেন। তিনি বলেছিলেন যে তিনি তার নাম রেখেছেন পামুক( তুলা)। মা বিড়ালটিকে অত্যন্ত তুলতুলে ও বিনয়ী মনে হওয়ায় তিনি এই নাম রেখেছেন বলে জানান।

Previous post ইরাকের নতুন প্রধানমন্ত্রীকে স্বাগত জানিয়েছে তুরস্ক
Next post করোনায় আক্রান্ত ১৩শ’ পুলিশ সদস্য, চিকিৎসার জন্য আলাদা হাসপাতাল