ভারতের নাগাল্যান্ডে কুকুরের মাংস খাওয়া নিষিদ্ধ

কুকুরের মাংস খাওয়া ও বিক্রির উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করল উত্তর-পূর্ব ভারতের নাগাল্যান্ড রাজ্য সরকার। গত শুক্রবার (৩ জুলাই) সেকথা জানান ওই রাজ্যের মুখ্যসচিব টেমজেন টয়। অর্থাৎ পূর্ব ভারতের ওই রাজ্যে কুকুরের মাংস বিক্রি করা এবার থেকে বন্ধ। ফলে সেখানকার যে বাসিন্দারা কুকুরের মাংস খেতেন, আইন মোতাবেক তাদের কুকুরের গোস্ত খাওয়া নিষিদ্ধ হলো।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম আজকাল এর এক খবরে বলা হয়, ‌রাজ্য সরকার কুকুরের বাণিজ্যিক আমদানির ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে। এই নিষেধাজ্ঞা জারি থাকবে কুকুরের মাংস বিক্রি হয় এমন মার্কেটের ওপর। রান্না করা কিংবা কাঁচা যে কোনও ধরনের কুকুরের মাংস বিক্রি এবার থেকে নিষিদ্ধ।

ওই সংবাদমাধ্যমটির খবরে আরো বলা হয়, নাগাল্যান্ড রাজ্যের ডিমাপুর বাজারে কুকুরের মাংস বিক্রির একটা ছবি সম্প্রতি ভাইরাল হয়েছে। সেই ছবি ঘিরে হইচই শুরু হতেই এই সিদ্ধান্ত, এমনটাই সূত্রের খবর। এদিকে, সম্প্রতি প্রযোজক ও সমাজকর্মী প্রীতীশ নন্দীও একটি প্রচারাভিযান চালু করেছিলেন। সেই প্রচারাভিযানে নাগাল্যান্ড কুকুরের মাংস খাওয়া ও বিক্রি বন্ধের দাবিতে সই সংগ্রহ করা হয়েছে।


বহুদিন ধরেই নাগাল্যান্ডে কুকুরের মাংস বিক্রি নিয়ে পশুপ্রেমিরা সরব হয়েছিলেন। কিন্তু কোনও লাভ হচ্ছিল না। স্থানীয় মানুষরা কুকুরের মাংস বিক্রি ও খাবার হিসাবে গ্রহণ পুরনো রীতি বলে দাবি করতেন। কিন্তু এবার নাগাল্যান্ডের সরকার কড়া পদক্ষেপ নিল। মার্চ মাসে নাগাল্যান্ডের প্রতিবেশী রাজ্য মিজোরামে কুকুরের মাংস বিক্রি নিষিদ্ধ করা হয়েছিল। তার পর থেকেই নাগাল্যান্ডের সরকারও একই কাজ করেছেন।

সূত্র: আজকাল

শেয়ার করুণ
  •