‘করোনাভাইরাস বরিসের প্রাপ্য ছিল’, এমন মন্তব্য করে বহিস্কার মেয়র

❛করোনাভাইরাস বরিসের প্রাপ্য ছিল❜ মন্তব্য করে দল থেকে বহিষ্কার হয়েছেন ব্রিটেনের লেবার পার্টির একজন মেয়র।

ডারবিশায়ার এলাকার হিওনরের মেয়র শিলা ওকস সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকের একটি পোষ্টে মেডিকেল ওয়ার্কারদের সমর্থন করতে গিয়ে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী জনসন সম্পর্কে এই মন্তব্য করেন।

শিলা বলেন, ‘বরিস জনসন ব্রিটেনের জন্য কিছুই করেননি। তোমরা কি দেখতে পাও না আজ ডাক্তার-নার্সদের পিপিআই নেই, নেই পর্যাপ্ত ভেন্টিলেটর। এখনও অপর্যাপ্ত তহবিল নিয়ে এনএইচএস-কে করোনা মোকাবিলা করতে হচ্ছে। সরি, করোনাভাইরাস ডিজার্ভ করেন বরিস’।

তার এই মন্তব্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ব্যাপক প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়। অনেকেই নিজ নিজ ফেসবুক টাইমলাইনে মেয়র শিলা ওকসের মন্তব্যকে অমানবিক ও নিষ্ঠুর আখ্যায়িত করে তার পদত্যাগ দাবি করেন।

ব্যাপক সমালোচনার মুখোমুখি হওয়ায় পর অবশেষে মেয়র শিলা ওকস তার এই মন্তব্যের জন্য অকপটে ক্ষমা চাইলেও শেষ রক্ষা হয়নি তার। দল থেকে তাকে বহিষ্কার করে লেবার পার্টি। ফলে আগামী নির্বাচনের আগ পর্যন্ত তিনি কাউন্সিলর থাকতে পারলেও দলের প্রতিনিধিত্ব করতে পারবেন না; স্বতন্ত্র হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন।

শিলা ওকসের মন্তব্যের নিন্দা জানিয়ে লেবার গ্রুপের একজন মুখপাত্র বলেন, ‘সোশ্যাল মিডিয়ায় শিলা ওকস যে মন্তব্য করেছেন তার তীব্র নিন্দা জানাই আমরা। এই মন্তব্যের পর স্থানীয় লেবার গ্রুপের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী তিনি আর লেবার কাউন্সিলর নন। লেবার গ্রুপ পরবর্তীতে তার বিষয়ে যথাযথ সিদ্ধান্ত গ্রহণ করবে।’

তিনি বলেন, ‘আমরা প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনসহ যারা ভয়াবহ করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন তাদের দ্রুত সুস্থতা কামনা করছি ও তাদের পরিবার পরিজনদের প্রতি আমাদের সমবেদনা জানাচ্ছি’।