চাঁদপুরে করোনা উপসর্গ নিয়ে নারায়ণগঞ্জ ফেরত এক ব্যক্তির মৃত্যু

চাঁদপুরে করোনা ভাইরাস উপসর্গ নিয়ে ৪১ বছর বয়সী এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে।

শনিবার রাতে চাঁদপুর সদর উপজেলার রামপুর ইউনিয়নের কামরাঙ্গা গ্রামে চিকিৎসক ও প্রশিক্ষিত স্বাস্থ্যকর্মীদের উপস্থিতিতে তার দাফন সম্পন্ন হয়।

রাতেই তার শরীর থেকে নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে।

ফয়সাল নারায়ণগঞ্জে একটি কোম্পানীর উৎপাদন কারখানায় কর্মরত ছিলেন। তার গ্রামের বাড়ি চাঁদপুরের মতলব উত্তর উপজেলায়। গত এক বছর আগে বিয়ে করেন তিনি। তিনি করোনার উপসর্গ নিয়ে শ্বশুর বাড়ি চাঁদপুর সদরের রামপুর এলাকায় এসে মারা যান।

ফয়সাল গত ২৬ মার্চ তার কর্মস্থল নারায়ণগঞ্জে সর্দি, জ্বর ও কাশিতে আক্রান্ত হন। তারপর তিনি কিছুটা সুস্থ হলে ১ এপ্রিল চাঁদপুর সদর উপজেলার রামপুর ইউনিয়নের কামরাঙ্গা গ্রামে শ্বশুর বাড়িতে আসেন। এর মধ্যে আবারও তার সর্দি, জ্বর ও কাশি দেখা দেয়। তার সঙ্গে রক্তের উচ্চচাপও বেড়ে যায়। এই পরিস্থিতিতে শনিবার বিকেলে মারা যান মোঃ ফয়সাল।

খবর পেয়ে রাতে সদর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. সাজেদা পলিন, মেডিকেল অফিসার ডা. আব্দুল্লাহ ফয়সালের নেতৃত্বে ৮ সদস্যদের একটি প্রশিক্ষিত দল যায়। দলটি মৃতের শরীরের নমুনা সংগ্রহ করে। পরে নির্ধারিত নিয়ম মেনে দাফন সম্পন্ন করা হয়।

এদিকে করোনার উপসর্গ নিয়ে আক্রান্ত আরো তিনজন রোগী চিহ্নিত হয়েছে। এদের মধ্যে দু’জনকে মতলব উত্তর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এবং একজনকে রাজধানীর কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।