করোনা পরিস্থিতিতে সর্বস্তরের মানুষের জন্য জরুরী ভাতার ব্যবস্থা করুন: সরকারকে চরমোনাই পীর

দেশে করোনার উদ্ভুত পরিস্থিতিতে সর্বস্তরের মানুষের জন্য জরুরী ভাতার ব্যবস্থা করার আহ্বান জানিয়েছেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আমীর মুফতী রেজাউল করীম চরমোনাই পীর।

শনিবার (১৬ মে) এক বিবৃতিতে চরমোনাই পীর এ আহ্বান জানান।

বিবৃতিতে চরমোনাই পীর আহ্বান জানিয়ে বলেন, মানবিক কারণে ও দুর্দশা লাঘবে করোনা পরিস্থিতিতে সকল শ্রেণীর কর্মহীন শ্রমিকদেরকে ১৫ হাজার টাকা করে এককালীন সহযোগিতা করুন।

বিবৃতিতে তিনি করোনা যোদ্ধা গণমাধ্যম কর্মীদেরকে উল্লেখযোগ্য প্রণোদনা প্রদান এবং অসহায় হয়ে যাওয়া প্রবাসীদের পরিবারকে নগদ সহযোগিতা দেওয়াসহ সরকারী খরচে বেকার হয়ে যাওয়া প্রবাসীদেরকে দেশে ফিরিয়ে আনার দাবী জানান।

চরমোনাই পীর বলেন, গণমাধ্যমকর্মীদের জন্য উল্লেখযোগ্য প্রণোদনা ঘোষণা করে ঈদের পূর্বেই তা পরিশোধ, প্রবাসী শ্রমিক যারা রেমিটেন্স যোদ্ধা; তাদের সিংহভাগ মানুষ প্রবাসে থাকেন এবং দেশে তাদের অনেক পরিবার মানবেতর জীবন যাপন করছেন, তাদেরকে দ্রুত নগদ প্রণোদনার আওতায় আনতে হবে এবং আটকাপড়া শ্রমিকদের যারা স্ব-ইচ্ছায় দেশে আসতে চায় তাদের সরকারী খরচে দেশে ফিরিয়ে আনতে হবে।

চরমোনাই পীর আরও বলেন, সরকার দুইবারে যে ১ কোটি রেশনকার্ড কর্মসূচী হাতে নিয়েছে তা প্রসংশনীয় উদ্যোগ হলেও দুর্নীতিবাজদের কারণে সরকারের এই উদ্যোগের সুফল প্রকৃত প্রাপকরা পাবে না। তাই দেশপ্রেমিক ও বলিষ্ঠ সেনাবাহিনী যেভাবে জাতীয় পরিচয়পত্র করে সুনাম অর্জন করে নির্ভুল ভোটার তালিকা প্রণয়ন করতে সক্ষম হয়েছে, তেমনি দেশপ্রেমিক সেনাবাহিনীর মাধ্যমে প্রকৃত ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য রেশনকার্ডের তালিকা প্রণয়ন করা গেলে দেশের জনগণ সরকারের শুভ উদ্যোগের সুফল পাবে।

Previous post দেশে গত ২৪ ঘন্টায় করোনায় প্রাণ গেল আরও ১৬ জনের
Next post গণস্বাস্থ্যের কিট অনুমোদন নিয়ে সরকার নোংরা রাজনীতি করছে : ডাঃ মোস্তাফিজুর রহমান