কাশ্মীরে লকডাউনে নিঃস্ব আমেদ খান, ঋণ শোধ করতে কিডনি বিক্রি!

করোনাভাইরাসে ভারত সরকারের জারী করা লকডাউনের ফলে কাশ্মীরের কুলগ্রাম জেলার কাজিগুন্দের নুস্সু গ্রামের বাসিন্দা সাবজার আমেদ খান নিঃস্ব হয়ে পড়েছেন। এমনকি ঋণ পরিশোধ করতে নিজের শরীরের কিডনী বিক্রি করার ঘোষণা দিয়েছেন। এতে চমকে উঠেছে গোটা বিশ্ব।

সম্পতি একটি পত্রিকায় নিজ কিডনী বিক্রির বিজ্ঞাপন দিয়েছেন আমেদ খান।

আমেদ খান গাড়ির ব্যবসার পাশাপাশি তিনি সরকারি কন্ট্রাক্টর। কিন্তু উপত্যকায় পরপর দুটি লকডাউনে তার ব্যবসা কার্যত বন্ধ হয়ে যায়। দেনা বাড়তে বাড়তে প্রায় ৯১ লক্ষ টাকায় গিয়ে ঠেকেছে। তারপরই পরিবারের লোককে জানিয়ে কিডনি বিক্রির বিজ্ঞাপন দেন সাবজার।

ঋণ ধার শোধ করতে নিরুপায় হয়ে কিডনি বিক্রির বিজ্ঞাপন দিয়েছেন তিনি। এবিষয়ে সাবজার বলেন, ‌অনেকেই টাকা পায় আমার কাছে। ব্যাঙ্ক থেকে ৬১ লক্ষ টাকা ঋণ নিয়েছি। আর অন্যদের থেকে ৩০ লক্ষ ধার করেছি। কিন্তু এখন আমি নিঃস্ব। তাই কিডনি বিক্রির সিদ্ধান্ত নিয়েছি।

করোনায় লকডাউনের আগেই কাশ্মীর উপত্যকায় জারি ছিল মানবতাবিরোধী লকডাউন‌। গত বছর ৩৭০ ধারা বিলোপের পরই ইন্টারনেট–সহ সমস্ত কিছু বহুদিন ধরেই বন্ধ ছিল সেখানে। কিন্তু তাতে অনেক স্থানীয়রা ভয়াবহ ক্ষতির সম্মুখীন হন।

সূত্র: আজকাল