ইসলাম শান্তির ধর্ম, অথচ বিশ্বজুড়ে ইসলামের বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালানো হচ্ছে : প্যাট্রিস এভরা

নভেম্বর ৮, ২০১৯ অনলাইন ডেস্ক

দীর্ঘদিন ধরে ইসলাম ধর্ম সম্পর্কে জানার চেষ্টা করছেন ফ্রান্সের কিংবদন্তি ফুটবলার প্যাট্রিস এভরা।

তিনি বলেন, ইসলাম সত্যিকার অর্থে একটি সুন্দর ধর্ম। এটি শান্তির বার্তা দেয়। এ ধর্ম একে অন্যকে সাহায্য-সহযোগিতার কথা বলে।

১৯৮১ সালে সেনেগালের ডাকারে ক্যাথলিক খ্রিস্টান পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন এভরা। পরে সপরিবারে ফ্রান্সে বসতি স্থাপন করেন। এখানে দীর্ঘদিন বসবাসের ফলে ফরাসি নাগরিকত্ব লাভ করেন তিনি।

ফ্রান্স জাতীয় দলে সুযোগ পাওয়ার পর তার ফুটবল প্রতিভার খবর গোটা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়ে। ফুটবল দুনিয়ার প্রায় সব নামিদামি লিগে খেলেছেন এ রক্ষণসেনা। খেলোয়াড়ি জীবন শেষে কোচিং ক্যারিয়ার শুরু করেছেন তিনি।

হঠাৎ ইসলাম গ্রহণে আগ্রহী হয়ে ওঠেন ৩৮ বছর বয়সী এই তারকা খেলোয়াড়। সেই কথা জানান বাবার কাছে। এতে চটে যান তার বাবা।

সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে এ নিয়ে খোলামেলা কথা বলেছেন ফরাসি এ ফুটবলার। এরই মধ্যে সেটি ভাইরাল হয়ে গেছে।

এভরা বলেন, ইসলাম থেকে শেখার অনেক কিছু আছে। এখন বিশ্বব্যাপী সন্ত্রাসবাদের জন্য এ ধর্মকে দোষারোপ করা হচ্ছে। সেই ক্ষণে আমি বলতে চাই- ইসলাম শান্তির ধর্ম।

তিনি বলেন, বাবার কাছে ইসলাম গ্রহণের ইচ্ছা পোষণ করায় বকা খেয়েছি। একপর্যায়ে বাবা জানতে পারেন, আমি ইসলামের প্রশংসা করছি। পরিপ্রেক্ষিতে উনি আমার ওপর রেগে যান এবং আমাকে বকাঝকা করেন। কারণ একটাই- আমার বাবা একজন ক্যাথলিক।

এই তারকা ফুটবল ব্যক্তিত্ব বলেন, মনে প্রাণে বিশ্বাস করি, ইসলাম আমার জন্য ভালো কিছু বয়ে আনবে। আমার বাবা-মা ও বন্ধু-বান্ধবদের আপত্তি উপেক্ষা করে এ বিশ্বাসে দৃঢ় থাকতে পারব বলে আমি মনে করি।

তিনি বলেন, বর্ণবাদ বিদ্বেষের উত্থানের পেছনে ইসলামের কোনো ভূমিকা নেই। এ ধর্ম বর্ণবাদে বিশ্বাস করে না। যারা বর্ণবাদের কথা বলে, বিশ্বব্যাপী ঘৃণা ছড়ায়, আমিও ব্যক্তিতভাবে তাদের হেয় করি।